SHARE

বহু পুষ্টিগুণে ভরপুর আমলকি। এতে মানবেদেহের প্রয়োজনীয় খনিজ ও ভিটামিন থাকে যা শরীরের জন্য খুবই উপকারী। এটি শরীরের অভ্যন্তরীন রোগ সারানোর পাশাপাশি রোগ প্রতিরোধেও সাহায্য করে। আমলকি শুধু শুধু অথবা রস, যেমন করেই খান না কেন তা শরীরের জন্য অত্যন্ত উপকারী।

ভিটামিন সি প্রাকৃতিকভাবে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের কাজ করে। আর আমলকি ভিটামিন সি’য়ের দারুন উৎস। এটি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। সর্দি, কাশিসহ বিভিন্ন ফ্লু থেকে রক্ষা পেতে সাহায্য করে আমলকি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রতিদিন এক চামচ আমলকির রস মধু দিয়ে খেলে সর্দি-কাশির প্রবণতা কমে যাবে। পাশাপাশি মুখের আলসার সারাতেও আমলকির রস বেশ উপকারী। এছাড়া এটি ত্বকে বয়সের ভাঁজ পড়া, চামড়া কুঁচকে যাওয়া রোধ করতে সাহায্য করে। নিয়মিত আমলকির রস খেলে কোলেষ্টেরল নিয়ন্ত্রণে থাকে। এর মধ্যে থাকা অ্যামিনো এসিড ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হৃদপিণ্ডের কার্যক্ষমতা বাড়ায়।ডায়বেটিস রোগীদের জন্য আমলকির রস বেশ উপকারী। হাঁপানি রোগীদের জন্যও এটি বেশ কার্যকর।

চুলের পুষ্টির জন্য আমলকির জুড়ি নেই। এতে রয়েছে অ্যামিনো এসিড এবং প্রোটিন । যা চুল পড়া রোধ করে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, আমলকির রস হজমে সহায়তা করে। এতে ভিটামিন সি, ক্যালসিয়াম,ফসফরাস থাকায় এটাকে পরিপূর্ণ পুষ্টিকর পানীয় বলা হয়।

সকালে এক গ্লাস পানিতে একটু লেবুর রস, মধুর সঙ্গে আমলকির রস মিশিয়ে খেতে পারেন। এতে দারুন উপকার পাওয়া যাবে। সূত্র : এনডিটিভি

39 Views