সারাদেশ

হরিরামপুরে প্রশাসনের ভ্রাম্যমান খাদ্য সামগ্রী বিতরন

শেয়ার করুন


জ. ই আকাশঃ
ঘড়ে আছিলো চাইর কেজি চাইল,তারপরে কি খামু.?
নাতি নাতনি গো নিয়া কি খামু.?
এহন চাইল পাইছি, কয়দিন বালাই যাইবো,
আবেগ জড়িত কন্ঠে ত্রান পেয়ে খুশিতে কেদে ফেললেন আনোয়ারা বেগম (৬০) নামের এক বৃদ্ধা।

মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার চালা ইউনিয়নের দিয়াপাড় গ্রামে রাস্তার পাশে ভাঙ্গা ঘড়ে থাকেন হতদরিদ্র এই আনোয়ারা বেগম।
স্বামী হারা আনোয়ারা বেগমের এক মেয়ে,দুই নাতি,এক নাতনি নিয়ে কষ্ট করে একটি মাত্র ঘরেই বাস কোনো রকমে বসবাস করে।

করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবেলায় জি,আর প্রকল্পের আওতায় হরিরামপুর উপজেলায় কর্মহীন,অসহায়,দুস্থ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বাড়িতে বাড়িতে পৌছে দিলেন হরিরামপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাবিনা ইয়াসমিন। এ ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবেলায় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে অসহায়,দুস্থ, কর্মহীন মানুষের পাশে সব সময় থাকবে হরিরামপুর উপজেলা প্রশাসন।’

উপজেলার চালা ইউনিয়ন হতে দিয়াবাড়ী-ঝিটকা-গোপিনাথপুর-কাঞ্চনপুর পর্যন্ত প্রধান সড়কেরপাশে বাস্তহারা কর্মহীন ১০০ টি পরিবারের মাঝে এ খাদ্য সামগ্রী বিতরন করা হয়।
খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে ছিলো ১০ কেজি চাউল, ৫ কেজি আলু,
কেজি ডাউল ও ১ টি সাবান।

খাদ্য সামগ্রী বিতরনের সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, মানিকগঞ্জ জেলা সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ ইব্রাহিম,
হরিরামপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মোঃ মানিকুজ্জামান মানিক প্রমুখ।