শিক্ষাঙ্গন

‘সোশিও ক্যাম্প সিজন ১০’ -এর গ্রান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত

প্রতিনিয়ত আমাদের চারপাশে ঘটে যাওয়া সামাজিক সমস্যাগুলো সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করার মধ্য দিয়ে একটি নিরাপদ ও সুন্দর সমাজ গঠনের উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে প্রতিবছরের ন্যায় এবারো নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটির সোশ্যাল সার্ভিসেস ক্লাব দেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক প্রতিযোগিতা “সোশিও ক্যাম্প সিজন দশ”- এর আয়োজন করেছে। গত বুধবার (৪ ডিসেম্বর) এ প্রতিযোগিতার চূড়ান্তপর্ব নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাসে সফলভাবে আয়োজন করা হয়।

এই প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে সামাজে প্রতিদিন ঘটে যাওয়া পুনরাবৃত্তিমূলক সামাজিক সমস্যাগুলো সমাধানে তরুণরা তাদের নিজস্ব পরিকল্পনাগুলো সবার সামনে তুলে ধরার সুযোগ পায়। এই কার্যক্রমে বিপুল সাড়া দিয়ে বাংলাদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ৫৫৮টি দল অংশগ্রহনকরেসেখান থেকে সেরা ৬টি দল চূড়ান্তপর্বের জন্য নির্বাচিত হয়৷ এই ৬টি দলকে তাদের নিজস্ব পরিকল্পনা উপস্থাপনের উপর ভিত্তি করে স্কোরিং করা হয়। এর উপর ভিত্তি করে টিম ‘টিজিটিজিকেপিআই’ কে বিজয়ী ঘোষণা করা হয় এবং ১লাখ ২০ হাজার টাকা সম্মাননা দেওয়া হয়। একইভাবে টিম ‘ক্রিস্টালশিপ’ কে প্রথম রানার্সআপ এবং টিম ‘ক্যাপ্টেনপ্ল্যানেট’ কে দ্বিতীয় রানার্সআপ হিসেবে যথাক্রমে ৭০ হাজার টাকা এবং ৪০ হাজার টাকা সম্মাননা দেওয়া হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটির বোর্ড অফ ট্রাস্টিজ চেয়ারম্যান জনাব বেনজির আহমেদ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য প্রফেসর আতিকুল ইসলাম এবং উপ-উপাচার্য ইসমাইল হোসাইন। চূড়ান্ত পর্বে বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইডিএলসি ফিন্যান্স লিমিটেডের চিফ মার্কেটিং অফিসার জান-এ-আলম রুমেল, বি.এফ.পি. বাংলাদেশের টিম লিডার ফয়সাল হোসেইন, এ্যাকশনএইড বাংলাদেশ-এর কান্ট্রি ডিরেক্টর ফারাহ কাবির, ডন সামদানি ফ্যাসিলেশন ও কন্সালটেন্সির ফাউন্ডার গোলাম সামদানি ডন, নগদের হেড অফ স্ট্র্যাডিজি এন্ড ডেভেলপমেন্ট কমার্শিয়াল মোরশেদ মাহমুদ এবং শ্রীলঙ্কা ও মালদ্বীপের ওয়েস্টার্ন ইউনিয়নের কান্ট্রি ম্যানেজার সাঈদ নূর-ই-ইলাহী।