খেলাধুলা

শেষ বলে জয় কুমিল্লার

১৬০ রানের লক্ষ্য বর্তমান যুগের টি-টোয়েন্টিতে অতটা বড় না হলেও একেবারে ছোটও নয়। ম্যাচ গতি বারবার পাল্টেছে, ম্যাচ পেন্ডুলামের মতো একবার কুমিল্লার দিকে হেলেছে আবার পর মূহূর্তেই মনে হয়েছে চট্টগ্রামই জিততে যাচ্ছে।

শেষ ওভারে লাগত ১৬, উইকেটে আছেন ডেভিড মালান। আশা তো ছিলই, তিনি করেছেন ৫১ বলে ৭৪ রান। তবে জয়ের নায়ক আবু হায়দার রনি। শেষ বলের আগের বলে মালান আউট হওয়ায় উইকেটে আসা নতুন ব্যাটসম্যান মুজিব এক বলে ৩ রানের সমীকরণ মিলিয়ে দেন বাউন্ডারি মেরে।

শেষ ওভারের প্রথম বলে সিঙ্গেল নিয়ে নন স্ট্রাইকে চলে আসেন মালান। এরপর রনি পরপর দুই বলে চার ছক্কা মেরে লক্ষ্য নামিয়ে আনেন ৩ বলে ৫ রানে। এরপর পরের বলে রনির সিঙ্গেল, লাগে ২ বলে ৪। পরের বলে দুই রান নিতে গিয়ে রান আউট হন মালান, শেষ বলে লাগত ৩ রান।

এর আগে, চট্টগ্রামকে ১৫৯ রানের লড়াকু স্কোরের ভিত্তি গড়ে দিয়েছিলেন চট্টগ্রামের দুই ওপেনার সিমন্স ও জুনায়েদ। দু’জন এগার ওভারে গড়েছেন ১০৩ রানের জুটি। সিমন্স চলে যাওয়ার পর জিয়াউর ছাড়া কেউ দাঁড়াতে না পারায় শেষ পর্যন্ত ১৫৯ রানেই থেমে যায় চট্টগ্রাম।