বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

ল্যাবে সংক্রমিত ব্যক্তি থেকে ছড়িয়ে থাকতে পারে করোনা: গবেষণা

শেয়ার করুন

বিডি রিপোর্ট টোয়েন্টিফোর ডটকম :

বিজ্ঞানীদের একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে, করোনাভাইরাস উহানের ওয়েট মার্কেটের কোনও প্রাণীর শরীর থেকে নাও ছড়িয়ে থাকতে পারে। দ্য মেইলের খবরে বলা হয়েছে, বায়োলজিস্টরা এমন প্রমাণ পেয়েছে যে এই ভাইরাসটি ‘আগে থেকেই সংক্রমিত হওয়া ব্যক্তির’ শরীর থেকে ছড়িয়েছে।

করোনাভাইরাস উহানের ওয়েট মার্কেট থেকে নয় বরং সেখানকার একটি ল্যাব থেকে ছড়িয়ে, এমন যে সম্ভাবনার কথা শোনা যাচ্ছিল, বিজ্ঞানীদের নতুন গবেষণা সেটিকেই সামনে নিয়ে আসলো। ওই ল্যাবে বাদুড়ের শরীরে করোনাভাইরাসের মতো রোগ নিয়ে পরীক্ষা করা হচ্ছিল।

যুক্তরাজ্যের মন্ত্রীরাও নাকি এমনটাই বলছেন যে, এই ভাইরাস ল্যাব থেকে ছড়িয়েছে এমন সম্ভাবনা ‘আর উড়িয়ে দেয়া যায় না।‘ব্রিটিশ কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিং হেই ঝ্যাংয়ের সঙ্গে মিলে ব্রড ইন্সটিটিউটের বায়োলজিস্ট ইউজিয়া অ্যালিনা চান ও বেঞ্জামিন ডেভারম্যান এই গবেষণা পরিচালনা করেছেন।নিজেদের গবেষণার জন্য করোনা রোগীর শরীর থেকে এবং ২০০২-০৪ সালের সার্স মহামারি থেকে জেনেটিক স্যাম্পল নিয়েছেন তারা। এই সার্স ভাইরাসও বাদুড় থেকে মানুষের শরীরে ছড়িয়েছিল।

গবেষকরা লিখেন, ‘২০০৩ সালে সার্স ভাইরাস মহামারির শেষদিকে’ নতুন করোনাভাইরাসের মিল দেখে তারা অবাক হয়ে গেছেন।এই মিল দেখে তাদের মধ্যে সন্দেহ দেখা দেয়। তারা লিখেন, দেখে মনে হচ্ছে ‘২০১৯ সালের শেষ দিকে পিয়ার ছাড়াই’ ছড়িয়ে করোনাভাইরাস। যার অর্থ দাঁড়াচ্ছে যে, একজন ব্যক্তির শরীর থেকে সেটা অন্যদের শরীরে ছড়িয়েছে।বিজ্ঞানীরা বলছেন যে, আমরা যে জেনেটিক তথ্য পেয়েছি তাতে মার্কেট থেকে ক্রস-স্পেসিস ট্রান্সমিশনের কোনও ইঙ্গিত’ পাওয়া যায় না।

তারা বলেন, সেক্ষেত্রে ল্যাবে গবেষণার সময় নন-জেনেটিক্যালি ইঞ্জিনিয়ার্ড প্রিকারসর থেকে মানবদেহে সংক্রমণের সম্ভাবনা বিবেচনা করা উচিত।