শিক্ষাঙ্গন

লকডাউনেও থেমে নেই মানিকগঞ্জ ইসলামিয়া কামিল মাদ্রাসার শিক্ষা কার্যক্রম

শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক, মানিকগঞ্জ :
করোনাভাইরাস পাল্টে দিয়েছে আমাদের দৈনন্দিন জীবনাভ্যাস। আমাদের চারপাশে এক অদ্ভুত অনিশ্চয়তা ভর করে বসেছে। খাদ্যের অনিশ্চয়তা, চাকরি থাকা না থাকার অনিশ্চয়তা, সন্তানের পড়ালেখার অনিশ্চিয়তা।

এমন এক অনিশ্চিত বিশ্বে শিক্ষা ক্ষেত্রেও দেখা দিয়েছে স্থবিরতা। বিজনেস ইনসাইডারের তথ্যানুযায়ী, বিশ্বের প্রায় ১৮৮টি দেশের শিক্ষার্থীরা করোনাকালে সরাসরি ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। বাধাগ্রস্ত হয়েছে তাদের শিক্ষাকাল। স্কুল-কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ। শিক্ষার্থীরা ঘরবন্দি। বাংলাদেশে দু’মাসেরও অধিক সময় ধরে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। কবে আবার শিক্ষা কার্যক্রমকে স্বাভাবিক করা যাবে সেটাও অনিশ্চিত। তবে শিক্ষা মন্ত্রণালয় মাধ্যমিক পর্যায়ে সংসদ টিভির মাধ্যমে শিক্ষা কার্যক্রম চালু করেছে। মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষার্থীদের জন্যও একইভাবে চালু করা হয়েছে টিভিতে সীমিত আকারে পাঠদান। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ও টিভিতে প্রাথমিকের ক্লাস চালু করেছে।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ সরকারি অনুমোদন নিয়ে ‘জুম’ অ্যাপস ও অন্যান্য ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহার করে সীমিত আকারে তাদের পাঠ ও পঠন চালু করার চেষ্টা করে যাচ্ছে।
এরই অংশ হিসেবে মাদ্রাসা শিক্ষাক্রমে মানিকগঞ্জের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ মানিকগঞ্জ ইসলামিয়া কামিল মাদ্রাসার শিক্ষা কার্যক্রম লকডাউনেও বন্ধ নেই।

মানিকগঞ্জ ইসলামিয়া কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মুহাম্মদ আতিকুর রহমান স্বউদ্যোগী হয়েও জুম অ্যাপস্ এবং হোয়াটস আপের মাধ্যমে ক্লাস নিয়ে তার সচিত্র বিবরণ পোস্ট করে অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন, যা থেকে উপকৃত হচ্ছে শিক্ষার্থীরা। এমনকি জুমের মাধ্যমে শিক্ষকরা সরাসরি লাইভ ক্লাস করাচ্ছেন।
এব্যাপারে অধ্যক্ষ মুহাম্মদ আতিকুর রহমান বলেন, করোনাকালীন এই সংকটময় মুহুর্তে শিক্ষার্থীদের পড়ার টেবিলে ফিরিয়ে আনার জন্য অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমের বিকল্প নেই। এরমাধ্যমে শিক্ষার্থীরা যেমন উপকৃত হচ্ছে তেমনি তাদের শিক্ষাজীবন থেকে মূল্যবান সময়টি নষ্ট হচ্ছে না।

তিনি আরো বলেন এই অনলাইন ক্লাসের সুবিধা হলো শিক্ষার্থীরা সারাদিনের যেকোন সময় শিক্ষার্থীরা শিক্ষককে তার বিষয়ের উপর প্রশ্ন করতে পারে আর শিক্ষকরা তাদের সুবিধামত সময় তার জবাব হোয়াটস আপে দিয়ে দিতে পারেন।

তিনি আরো বলেন, আশা করছি আমরা এই পদ্ধতিতে অর্ধ বার্ষিক পরীক্ষা গ্রহন ও উত্তরপত্র মূল্যায়ন করতে পারব। ফলে এর থেকে ছাত্র-ছাত্রীরা উপকৃত হবে। তিনি মানিকগঞ্জ জেলার প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এই অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম চালুর পরামর্শ দিয়েছেন।

অধ্যক্ষ মুহাম্মদ আতিকুর রহমান জানান,মানিকগঞ্জ ইসলামিয়া কামিল মাদ্রাসার গভর্নিং বডির সভাপতি স্বাস্থ্য মন্ত্রী জাহিদ মালেক অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমকে সাধুবাদ জানিয়েছেন ।