আজকের সেরা সংবাদ

মাস্ক, পিপিই ও হ্যান্ড গ্লাভস যত্রতত্র ফেলে রাখায় বাড়ছে সংক্রমণের ঝুঁকি

শেয়ার করুন

বিডি রিপোর্ট টোয়েন্টিফোর ডটকম :

সারাদেশকে নতুন করে হুমকির মুখে ফেলেছে করোনা বর্জ্য। মাস্ক, পিপিই ও হ্যান্ড গ্লাভস যত্রতত্র ফেলে রাখায়, বাড়ছে সংক্রমণের ঝুঁকি। বাসাবাড়ির সাধারণ বর্জ্যের সাথে করোনা বর্জ্য মিলিয়ে ফেলায় তা আলাদা করা যাচ্ছে না। দুই সিটি করপোরেশন এ ব্যাপারে নানা উদ্যোগ নিলেও এখনও কার্যকর কোন উদ্যোগ দেখা যায়নি। 

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে সাবান-পানি দিয়ে হাত ধোয়া ও শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার পাশাপাশি মাস্ক ও হ্যান্ড গ্লাভস এর ব্যবহার এখন, জীবন বাঁচানোর অন্যতম অনুসঙ্গ। এসব সুরক্ষা সামগ্রীর সঠিক ব্যবহার না জেনে অনেকেই রাস্তা-ঘাটে উন্মুক্ত স্থানে তা ফেলে দেন। আর এর ফলে খুব সহজেই যে কেউ করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন।

ব্যবহার করা মাস্কে ভাইরাস দুই থেকে তিন দিন বেঁচে থাকে। অনেক সময় বাসাবাড়ির বর্জ্যের সঙ্গেও এসব স্পর্শকাতর বর্জ্য ফেলে দেয়া হচ্ছে। ফলে সেখান থেকেও ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। সুরক্ষা সামগ্রীর বর্জ্যের যথাযথ ব্যবস্থাপনার অভাবে যেমন বাড়ছে মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকি তেমনি ঘটছে পরিবেশ বিপর্যয়।

এমন পরিস্থিতিতে, বাসা বাড়ি থেকেই করোনার বর্জ্য আলাদা করার পরামর্শ দিলেন বিশেষজ্ঞরা।

ঢাকা শহরের অলিগলিতে ছড়িয়ে পড়েছে করোনার সংক্রমণ। এমন অবস্থায় করোনা বর্জ্যের সুষ্ঠু ব্যবস্থায় কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে দুই সিটি করপোরেশন। সমস্যা সমাধানে সাধারণ মানুষকে আরও সচেতন হওয়ার তাগিদ দিলেন বিশেষজ্ঞরা।