হেড লাইন

‘বুলেট ট্রেনের চেয়েও দ্রুতগতিতে নিউ ইয়র্কে বিস্তার ঘটছে করোনার’

নিউ ইয়র্কে করোনা ভাইরাস বা কভিড-১৯ বুলেট ট্রেনের চেয়েও দ্রুতগতিতে বিস্তার ঘটছে। এ জন্য দ্রুত মেডিকেল সরঞ্জাম সরবরাহের আহ্বান জানিয়েছেন এ রাজ্যের গভর্নর অ্যানড্রু কুমো। কিন্তু পর্যাপ্ত সাড়া না পেয়ে তিনি ফেডারেল সরকারের কড়া সমালোচনা করেছেন। গভর্নর অ্যানড্রু কুমো সতর্ক করে বলেছেন, সেখানে যেমনটা ধারণা করা হয়েছিল, করোনা সংক্রমণ তার চেয়ে অনেক ভয়াবহ হতে পারে। তাছাড়া এই ভয়াবহতা খুব তাড়াতাড়িই দেখা দিতে পারে বলে তিনি মঙ্গলবার সাংবাদিকদের বলেছেন। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি। এ সময় তিনি করোনা সঙ্কট মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় সরকার পর্যাপ্ত সরঞ্জাম সরবরাহ করেনি বলে অভিযোগ করেন। তিনি উল্লেখ করেন তার রাজ্যে প্রয়োজন ৩০০০০ ভেন্টিলেটর।

উল্লেখ্য, নিউ ইয়র্কে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন কমপক্ষে ২৫০০০ মানুষ। মারা গেছেন কমপক্ষে ২১০ জন। এ অবস্থার প্রেক্ষাপটে অ্যানড্রু কুমো বলেন, আমাদের ফেডারেল সহায়তা প্রয়োজন। ঠিক এখনই এই সহায়তা প্রয়োজন। তিনি বলেন, নিউ ইয়র্কে যে সংক্রমণ ঘটছে তা ঘটছে খুব দ্রুত। নিউ ইয়র্কে এখন যা ঘটছে সেই একই ঘটনা ঘটবে ক্যালিফোর্নিয়া ও ইলিনয় রাজ্যে। ব্যাপারটা এখন শুধু সময়ের বিষয়। যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল ইমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্ট এজেন্সি (ফেমা) নিউ ইয়র্কে মাত্র ৪০০ ভেন্টিলেটর পাঠিয়েছে। এ জন্য ফেডারেল সরকারের কড়া সমালোচনা করেন তিনি। অ্যানড্রু কুমো প্রশ্ন রাখেন, (মাত্র) ৪০০ ভেন্টিলেটর? আমার প্রয়োজন ৩০০০০ ভেন্টিলেটর। এর বিপরীতে আপনারা পাঠিয়েছেন ৪০০ ভেন্টিলেটর? আপনারা সমস্যার ভয়াবহতা বুঝতে ভুল করেছেন।

তিনি বলতে থাকেন, আমাকে সংক্রমণের যে পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে তাতে আমরা দেখতে পাচ্ছি একটি ‘বুলেট ট্রেন’ ধেয়ে আসছে। তাই তার রাজ্য আরো বেশি স্বাস্থ্যসেবার ক্ষেত্র সৃষ্টি করছে। এর মধ্যে কলেজ ডরমেটরি এবং হোটেলকে হাসপাতাল হিসেবে ব্যবহার করা হতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রে মোট যে পরিমাণ মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে শুধু নিউ ইয়র্কে তার মধ্যে অর্ধেকের বেশি। তাদের সংখ্যা ২৫ হাজার ৬৬৫। গভর্নর কুমো বলেছেন, প্রতি তিন দিনে এই সংখ্যা দ্বিগুন হচ্ছে। আক্রান্তের সংখ্যা ধীর গতির কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। তাই নিউ ইয়র্কে কমপক্ষে এক লাখ ৪০ হাজার হাসপাতাল-বেডের প্রয়োজন হতে পারে। তিনি আরো বলেন, মানুষের জীবন রক্ষা করতে হলে তিনি এক ডলারও হাতে রাখবেন না। উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন, করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে গৃহীত পদক্ষেপ যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতিকে ধ্বংস করে দিতে পারে। তার এমন উদ্বেগের সমালোচনামুলক জবাবে গভর্নর কুমো ওই মন্তব্য করেছেন।