খুলনা বিভাগ

বাংলাদেশিকে হত্যার পর লাশ ফেলে গেল ভারতীয়রা

ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যার পর এক বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ীর মরদেহ চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার চাকুলিয়া সীমান্তে ফেলে গেছে ভারতীয়রা। নিহতের নাম আবদুল গনি (৩০)। সোমবার (২৫ নভেম্বর) রাত ৮টার দিকে চাকুলিয়া সীমান্তের বিপরীতে ভারতের প্রবেশ মুখে এ ঘটনা ঘটে।

আবদুল গনি (৩০) উপজেলার চাকুলিয়া গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে। নিহতের ভাই মনি জানান, সোমবার রাতে চাকুলিয়া সীমান্তের ৮৭ নম্বর মেইন পিলারের কাছ দিয়ে ছয়-সাতজন গরু ব্যবসায়ী ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করেন।

এ সময় বেশ কিছু ভারতীয় নাগরিক ধাওয়া দিয়ে আবদুল গণিকে ধরে ফেলেন। এ সময় ভারতীয়রা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে তাকে সীমান্তে ফেলে রেখে যান। খবর পেয়ে মঙ্গলবার ভোরে তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল খালিকুজ্জামান বলেন, আমি শুনেছি সীমান্তে একজনকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।