খুলনা বিভাগ

নড়াইলে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

শেয়ার করুন

নড়াইলের লক্ষীপাশা গ্রামের যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী মেরিনা বেগমকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। পুলিশ অভিযুক্ত স্বামী বিজ্ঞান মোল্লা ওরফে রাসেলকে আটক করেছে।

ঝিলু মোল্লার ছেলে রাসেরের সঙ্গে উপজেলার মাইগ্রামের কবির হোসেন মোল্লার মেয়ে মেরিনা বেগমের বিয়ে হয় ২০ বছর আগে। তাদের দাম্পত্য জীবনে হৃদয় ও তামান্না নামে দুটি সন্তান রয়েছে।

মেরিনার চাচাতো ভাই ফরিদ আহম্মেদ মিঠু বলেন, বিয়ের পর থেকে যৌতুকের দাবিতে রাসেল তার স্ত্রী মেরিনাকে মারধর করতো। ৯ ফেব্রুয়ারি রাসেল সংসারের প্রয়োজনে মেরিনাকে ভাইদের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা আনার কথা বলে। মেরিনা টাকা আনতে অপারগতা প্রকাশ করায় স্বামী রাসেল রোববার রাতে স্ত্রীকে গালিগালাজ করে লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারপিট করে ফেলে রাখে।

পরে রাসেলসহ তার ভাই রিন্টু শেখ ও মা মুকুল বেগম পরস্পর যোগসাজসে রাতেই মেরিনাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে নড়াইলের লোহাগড়ায় রোববার রাতে।

নড়াইলের লোহাগড়া থানার ওসি প্রবীর বিশ্বাস বলেন, অভিযুক্ত স্বামী বিজ্ঞান মোল্লা ওরফে রাসেলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। মৃত্যুর সঠিক কারণ উদঘাটনের জন্য মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নড়াইল সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।