ঢাকা বিভাগ

ধান খেতে মিললো ফুটফুটে শিশু

শেয়ার করুন

যখন মায়ের উষ্ণতায় বেড়ে ওঠার কথা ফুলের মতো পবিত্র ফুটফুটে নবজাতকটির তখনই তাকে সইতে হলো পৃথিবীর কঠিন এক নির্মমতা। জন্মের পরপরই শিশুটিকে ফেলে রাখা হয়েছিলো একটা ধান খেতে। সেখান থেকে তাকে তাকে উদ্ধার করেছে এক গ্রামের এক মমতাময়ী নারী।

ঘটনাটি ঘটেছে কিশোরগঞ্জের তাড়াইল উপজেলার। উপজেলার পুরুড়া স্কুল সংলগ্ন একটি ধান খেতে পাওয়া গেছে ফুটফুটে একটি নবজাতক।

এলকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার পুরুড়া স্কুল সংলগ্ন একটি ধানখেত থেকে নবজাতকের কান্নার আওয়াজ শুনে গ্রামের সুফিয়া খাতুন নামে এক নারী এগিয়ে যান। গিয়ে দেখেন সেখানে পড়ে আছে ফুটফুটে এক শিশু। পরম মমতায় তিনি বাচ্চাটিকে কোলে করে নিয়ে আসেন বাড়িতে। মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়ে এই খবর। ছেলেটিকে এক নজর দেখার জন্য গ্রামের অনেকেই এসে ভিড় করছেন তার বাড়িতে। ফুটফুটে ছেলে শিশুটি নজর কাড়ছে সবার। এখন এক কোল থেকে আরেক কোলে ঘুরে বেরাচ্ছে সে।

নবজাতক এই ছেলে শিশুটিকে জন্মের পরপরই তার মা তাকে ফেলে রেখে গেছেন বলে এলাকাবাসীর ধারণা।

এ ব্যাপারে তাড়াইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুজিবুর রহমান জানান, পরিত্যাক্ত অবস্থায় মঙ্গলবার ভোরে তাড়াইল থানার পুরুরা এলাকার একটি ধান খেতে এই ছেলে শিশুটি পাওয়া গেছে। এই ব্যাপারে কারো কাছে কোনো তথ্য থাকলে তাড়াইল থানায় যোগাযোগ করার কথা বলেন তিনি।