প্রচ্ছদ জাতীয় জবির সমাবর্তনে শিক্ষকদের কঠোর সমালোচনা রাষ্ট্রপতির

জবির সমাবর্তনে শিক্ষকদের কঠোর সমালোচনা রাষ্ট্রপতির

শেয়ার করুন

প্রতিষ্ঠার ১৪ বছর পর জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠ (ধূপখোলা মাঠ)-এ শিক্ষার্থীরা এ সমাবর্তনে অংশগ্রহণ করেন। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সমাবর্তন অনুষ্ঠানে দেয়া ভাষণে বলেন, উপাচার্যগণ হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নির্বাহী। দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে আপনাদেরকে সততা, নিষ্ঠা ও দক্ষতার পরিচয় দিতে হবে। আপনারা নিজেরাই যদি অনিয়মকে প্রশ্রয় দেন বা দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়েন, তা হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থা কী হবে, তা ভেবে দেখবেন।

তিনি আরও বলেন, এক শ্রেণির শিক্ষক রয়েছেন, যারা বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকরিটাকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করেন। অনেক সময় সান্ধ্যকালীন কোর্স ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস নিয়ে সপ্তাহব্যাপী অতি ব্যস্ত সময় কাটান। এ সমস্ত কাজ কর্মে তারা খুবই আন্তরিক। যত অনীহা শুধু বিশ্ববিদ্যালয়ে নির্ধারিত ক্লাস নেওয়ার ক্ষেত্রে।

সমাবর্তন ঘিরে শিক্ষার্থীদের মাঝে বেশ উচ্ছ্বাস দেখা গেছে। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, এবারের সমাবর্তনে রেজিস্ট্রেশন করেছেন ১৮ হাজার ৩১৭ শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে স্নাতকোত্তর ৪ হাজার ৮২৯ জন, স্নাতক ১১ হাজার ৮৭৭ জন, পিএইচডি ৬ জন, এমফিল ১১ জন ও ইভেনিং প্রোগ্রামের ১৫৭৪ জন শিক্ষার্থী রয়েছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সূত্রে জানা যায়, ২০০৫ সালে এ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হলেও এত দিন স্থান সংকুলানের অভাবে সমাবর্তন আয়োজন করা হয়নি।২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে সমাবর্তন আয়োজনে কমিটি গঠন করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। পরে সমাবর্তনের জন্য ২০১৯ সালের ১ মার্চ থেকে নিবন্ধন শুরু হয়।