হেড লাইন

চীন থেকে পালিয়ে এলো শিক্ষার্থী, করোনা সন্দেহে হাসপাতালে ভর্তি

শেয়ার করুন

চীন থেকে পালিয়ে আসা শিক্ষার্থী ইমরান হোসেনকে (২২) করোনাভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে রোববার রাতে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বরগুনা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুমা আক্তার জানিয়েছেন, বরগুনা সদর ৯ নং এম বালিয়াতলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো: শাহনেওয়াজ সেলিম সোমবার সকালে তাকে ইমরানের পালিয়ে আসার খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

বরগুনা থানার ওসি আবির মোহাম্মদ হোসেন জানিয়েছেন, ইউএনওর কাছ থেকে খবর পেয়ে তিনি ইমরানকে বাড়ি থেকে এনে রোববার রাত ৮টার দিকে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেছেন।

বরগুনা জেনারেল হাসপাতালের পরিচালক ডা: মো: সোহরাব উদ্দিন জানান, ইমরানের গায়ে সামান্য জ্বর ছাড়া করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবার মতো আর কোনো লক্ষণ পাওয়া যাচ্ছে না। পরীক্ষার পরে তাকে একটি আলাদা কক্ষে রাখা হয়েছে।

এ বিষয়ে বরগুনার সিভিল সার্জন ডা: মো: হুমায়ূন শাহীন খান তার সভা কক্ষে সোমবার বেলা ২টায় প্রেস ব্রিফিং করেছেন। করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কের কোনো কারণ নেই বলে জানিয়েছেন তিনি।

জানা গেছে, ইমরানের বাড়ি বরগুনা সদর উপজেলার এম বালিয়াতলী ইউনিয়নের নিমতলী গ্রামে। তার বাবার নাম মোখলেসুর রহমান।

তিনি বলেন, রোববার সকালে ইমরান বাড়ি ফিরেছে। তবে কবে কখন চায়না থেকে দেশে ঢুকেছে তা সঠিকভাবে বলতে পারছি না। ও ফিরে আসার পর একটি বদ্ধ কক্ষে আটকে রাখা হয়েছিল।