হেড লাইন

গুজব রোধে র‌্যাবের সাইবার ভেরিফিকেশন সেল

শেয়ার করুন

বিডি রিপোর্ট টোয়েন্টিফোর ডটকম :

চলমান করোনা পরিস্থিতি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিথ্যা তথ্য ও গুজব ছড়ানো রোধে চালু হলো র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সাইবার ভেরিফিকেশন সেল।

বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল) র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. সারওয়ার বিন কাশেম এক ভিডিও বার্তায় এ তথ্য জানান৷

তিনি বলেন, কোভিড-১৯ একটি বৈশ্বিক রোগ। এ রোগে এখন পর্যন্ত ৯০ হাজারের মতো মানুষ মারা গেছেন এবং ১৫ লাখের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। বাংলাদেশে কিন্তু এ পর্যন্ত ৩৩০ জন লোক এ রোগে আক্রান্ত আমরা পেয়েছি এবং ২১ জন মারা গেছেন। এ বৈশ্বিক সমস্যা থেকে রক্ষা পেতে আমরা সব আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী চেষ্টা করে যাচ্ছি। আমরা জনগণকে সাহায্য করছি, তারা যেন ঘরে থাকেন এবং ঘর থেকে বের হতে না পারেন।

আমরা লক্ষ্য করছি, কিছু কুচক্রী মহল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে করোনা নিয়ে নানা গুজব ছড়াচ্ছে। এর মাধ্যমে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি হচ্ছে এবং সন্দেহ সৃষ্টি হচ্ছে। গত কয়েক দিনে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে ১০ জন গুজব সৃষ্টিকারীকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া আমরা গুজব রটনাকারী আরও অর্ধশতজনকে নজরদারিতে রেখেছি, যোগ করেন তিনি।

র্যা বের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক আরো বলেন, যারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়াচ্ছেন, তাদের বার বার আমরা বলছি, তারা যেন মিথ্যা তথ্য না দেন। আর মানুষ যেন এসব মিথ্যা তথ্য শেয়ার দেওয়া থেকে বিরত থাকেন। গুজব রোধে আমরা এরই মধ্যে একটি সাইবার ভেরিফিকেশন সেল খুলেছি। যারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কোনো তথ্য সত্য না মিথ্যা, তা না বুঝতে পারলে আমাদের সেলে পাঠালে আমরা নিশ্চিত করে দেব যে এটা সত্য না মিথ্যা।

আমরা সম্প্রতি তিনটি ঘটনা পেয়েছি, যেখানে দেখানো হয়েছে রাস্তায় মরদেহ পড়ে আছে। আমরা ভেরিফিকেশন করে দেখেছি, এগুলো সব মিথ্যা এবং ভুয়া। এছাড়া এ বিষয়ে বিস্তারিত আমাদের সেলে আপলোড করা হয়েছে, যোগ করেন তিনি।সারওয়ার বিন কাশেম আরো বলেন, আমরা সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াতে চাই। আমরা প্রতিদিন ত্রাণ দিচ্ছি মানুষকে। আমরা প্রচুর ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছি এবং যারা অকারণে বাইরে বের হয়েছেন, তাদের জরিমানা করেছি।