আজকের সেরা সংবাদ

করোনায় বেড়েছে অনলাইন গণমাধ্যমের চাহিদা

শেয়ার করুন
 

বিডি রিপোর্ট টোয়েন্টিফোর ডটকম :

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে টিভি ও সংবাদপত্রকে ছাপিয়ে অনলাইন গণমাধ্যমের চাহিদা বেড়েছে। এসময় মানুষজনের সংবাদের প্রতি আগ্রহ বেড়েছে। ৪০টি দেশের ৮০ হাজার মানুষের ডিজিটাল নিউজ পড়া ও দেখার ওপর ভিত্তি করে রয়টার্স ইন্সটিটিউট ফর দ্য স্টাডি অব জার্নালিজমের যে ডিজিটাল নিউজ রিপোর্ট ২০২০ তৈরি করেছে, সেখানে এমন তথ্য উঠে এসেছে।

করোনার কারণে বিশ্বব্যাপী লকডাউনের কারণে খবরের প্রতি মানুষের আগ্রহ বেড়েছে। বিশেষ করে মানুষজন এই সময় বেশি পরিমাণে টিভি নিউজ ও অনলাইন গণমাধ্যমের দিকে ‍ঝুঁকেছে।

রয়টার্স বলছে, অধিকাংশ দেশেই নিউজের জন্য অনলাইন এবং সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ার মধ্যে সবচেয়ে বেশি হোয়াটসঅ্যাপের দিকে ঝুঁকেছে মানুষ। কিছু কিছু দেশে নিউজের জন্য হোয়াটসঅ্যাপের ব্যবহার ১০ শতাংশ বেড়েছে।

এছাড়া সংবাদের জন্য গণমাধ্যমের প্রতি মানুষজনের আস্থা দ্বিগুণ হয়েছে। বিশেষ করে করোনা সম্পর্কিত তথ্য ও শাটডাউনের জন্য মানুষজন অনলাইন ও সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্লাটফর্ম ব্যবহার করেছে। যেসব দেশের ওপর গবেষণা চালানো হয়েছে, সেসব দেশের ২৮ শতাংশ মানুষ নিউজের জন্য ওয়েবসাইট বা অ্যাপ ব্যবহার করেছে।

রয়টার্স বলছে, ১৮-২৪ বছর বয়সীরা জানিয়েছে তারা খবরের জন্য সোশ্যাল মিডিয়াকে বেছে নিয়েছে। ২০১৮ সালের পর থেকে খবরের জন্য ইনস্টাগ্রামের ব্যবহার দ্বিগুণ হয়েছে। আগামী ২০২১ সালে এটা টুইটারকেও পেছনে ফেলবে বলে গবেষণায় উল্লেখ করা হয়েছে। ৩১ শতাংশ মানুষ জানিয়েছে, তারা স্থানীয় নিউজ ও তথ্যের জন্য ফেসবুক ও অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে।

খবর পড়ার জন্য এখন অনেক বেশি মানুষ স্মার্টফোন ব্যবহার করছে। ফলে সময়ের সঙ্গে তাল মেলাতে গিয়ে এখন আগের চেয়ে অনেক বেশি ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান অনলাইন গণমাধ্যমের পেছনে অর্থ ব্যয়ে আগ্রহ দেখাচ্ছেন। যদিও এক্ষেত্রে সংবাদের মান ধরে রাখা নিয়ে সংশয় বাড়ছে।

এদিকে রয়টার্স বলছে, সংবাদের প্রতিযোগিতায় ভিডিওমাধ্যম সবচেয়ে এগিয়ে থাকবে এমন ধারণা গবেষণায় ভুল প্রমাণিত হয়েছে। তাদের জরিপে দেখা গেছে যে, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, ফ্রান্স, দক্ষিণ কোরিয়াসহ বেশ কয়েকটি দেশে ৩৫ বছরের কম বয়সীরা সংবাদ দেখার চেয়ে পড়তেই বেশি পছন্দ করেন।