খেলাধুলা

করোনাভাইরাসের কারণে এবার টি-২০ এশিয়া কাপ নিয়ে শঙ্কা

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের প্রভাবে এবার শঙ্কার মুখে পড়লো আগামী টি-২০ এশিয়া কাপ। করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে সম্প্রতি স্থগিত করা হয়েছে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি) সভা। এশিয়া কাপের পরবর্তী আসর আয়োজনের দায়িত্ব পাকিস্তানের। ইতোমধ্যে দেশের মাটিতে তিন ফরম্যাটের ক্রিকেট ফিরিয়েছে পাকিস্তান।

তবে এশিয়া কাপের আসর নিজেদের মাটিতে আয়োজন করতে পারবে না পাকিস্তান। কারন পাকিস্তান সফরে যাবে না ভারত। এমনটা আগেই জানিয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী। তিনি বলেছিলেন, ‘ভারতীয় দল পাকিস্তানে খেলতে যাবে না। তবে নিরপেক্ষ ভেন্যু হলে টুর্নামেন্ট অংশ নিবে ভারত।’

তাই এশিয়া কাপের আগামী আসর সংযুক্ত আরব আমিরাতে করার সিদ্বান্ত এ মাসেই চূড়ান্ত করার কথা রয়েছে এসিসির। এ মাসে আইসিসির সভায় এশিয়া কাপ নিয়ে আলোচনার কথা ছিলো এসিসির। কিন্তু করোনাভাইরাসের জন্য এ মাসে আইসিসির সভা বাতিল হয়েছে। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ মাসে সভা করবে আইসিসি। ভিডিও কনফারেন্সে সভা করলেও, এশিয়া কাপের পরবর্তী আসর নিয়ে এখনই চূড়ান্ত সিদ্বান্ত নিতে পারবে না আইসিসি। কারন আগামী জুন পর্যন্ত সকল ধরনের ক্রিকেট আসর গতকাল স্থগিত করে দিয়েছে আইসিসি। তাই এখনই এশিয়া কাপের পরবর্তী আসর নিয়ে কোন সিদ্বান্ত নিবে না আইসিসি, এমনটা নিশ্চিতই।

তবে একটি সূত্র বলছে, ‘এশিয়া কাপেরও কিছু ম্যাচ দেশের মাটিতে আয়োজন করার চেষ্টা করছে পাকিস্তান। যাতে অনুমতি পেতেও পারে পাকিস্তান।’

এসিসি এক্সিকিউটিভ বোর্ডের কাছে ইতোমধ্যে এই আবেদন করেছে পাকিস্তান। যদি নিরপেক্ষ ভেন্যুতে টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হয়, তবে এশিয়া কাপ টি-২০র কিছু ম্যাচ যেন দেশের মাটিতে আয়োজন করার সুযোগ দেওয়া হয়। ভারতবাদে অন্য তিন দল শ্রীলংকা, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচগুলো নিজ মাঠে আয়োজন করতে চায় পাকিস্তান।