প্রচ্ছদ বিনোদন এরতুগ্রুলের পর পাকিস্তানে আলোড়ন তুলছে আরেক তুর্কি সিরিয়াল ‘ইউনুস এমরে’

এরতুগ্রুলের পর পাকিস্তানে আলোড়ন তুলছে আরেক তুর্কি সিরিয়াল ‘ইউনুস এমরে’

artugul

বিডি রিপোর্ট টোয়েন্টিফোর ডটকম :

পাকিস্তানের সরকারি টেলিভিশনে তুরস্কের বিভিন্ন মেগা সিরিয়াল প্রচারের কারণ উল্লেখ করে দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, ব্লকবাস্টার এই সিরিয়ালগুলো মানুষের মধ্যে বিশেষত যুব সমাজকে শিক্ষিত ও অনুকরণীয় ভাল চরিত্র সরবরাহ করতে প্রচার করা হচ্ছে।

শনিবার রাতে পাকিস্তানের স্থানীয় টেলিভিশনকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি একথা বলেন। ইমরান খান বলেন, তুর্কি এই সিরিয়ালগুলো মানুষকে বিকল্প বিনোদন দিয়ে আসছে।

মোবাইলের ফোনসহ বিভিন্ন প্রযুক্তির অপব্যবহার সমাজকে “বিপর্যস্ত” করেছে বলে উল্লেখ করে ইমরান খান বলেন, আপনি এগুলোকে নিষিদ্ধ করতে পারবেন না, তবে আপনি জনসাধারণকে বিকল্প বিনোদন সরবরাহ করতে পারেন।

artugul

তিনি বলেন, পাকিস্তানে ‘ইউনুস এমরে: আশকিন ইওলচুলুউ’ (ইউনুস এমরে: ভালোবাসার পথযাত্রা) এবং ‘দিরিলিস এরতুগ্রুল’-এর মতো মানসম্মত সিরিয়াল প্রচরণার চেষ্টা করবে যা দেশ-বিদেশে রেকর্ড সংখ্যক দর্শক উপভোগ করেছেন।

এই সপ্তাহের শুরুতে ইমরান খান ‘ইউনুস এমরে’ সিরিয়াল দেখার পরামর্শ দিয়ে বলেছিলেন, সুফিবাদের প্রতি যাদের আগ্রহ রয়েছে তারা ‘ইউনুস এমরে’ দেখতে পারেন।

ব্লকবাস্টার এই সিরিজটি পাকিস্তানে ‘রাহ-ই-ইশক‘ অর্থাৎ ‘ভালোবাসার পদযাত্রা’ শিরোনামে প্রচারিত হচ্ছে। পাকিস্তানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে উর্দু ডাবিংয়ের মাধ্যমে প্রচারিত এই সিরিজটি ইতোমধ্যে দর্শকদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।

মঙ্গলবার এক টুইট বার্তায় ইমরান খান বলেছেন, ‘সুফিবাদের (মারেফত) প্রতি যারা আগ্রহী তাদের জন্য পিটিভিতে ‘ইউনুস এমরে’ সিরিয়ালটি দেখানো হচ্ছে বলেই আমার দৃঢ় বিশ্বাস।’

এর আগে পাকিস্তানে ‘দিরিলিস এরতুগ্রুল’ সিরিজটি প্রচার শুরু হলে তা ইউটিউবে রেকর্ড গড়ে।

ইউনুস এমরে কে ছিলেন?
ইউনুস এমরে যিনি দার্ভিস (দরবেশ) নামেও পরিচিত। এই তুর্কি কবি এবং সূফী চিন্তাধারায় পুরোধা ব্যক্তিত্ব ১৩ শতাব্দীতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।

তিনি আনাতোলিয়ায় বসবাস করতেন। যা বর্তমান তুরস্ক। তিনি সুফিবাদে অত্যন্ত প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব ছিলেন। তাকে অধ্যাত্মিক ডাক্তার বলা হতো।

সূত্র : আনাদোলু এজেন্সি