হেড লাইন

এবার চট্টগ্রামে আইসোলেশনে থাকা কিশোরের মৃত্যু

শেয়ার করুন

এবার চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে আইসোলেশন ইউনিটে থাকা এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (১ এপ্রিল) তার মৃত্যু হলেও কয়টার দিকে মৃত্যু হয়েছে সে ব্যাপারে কোনো কথা বলছে না চট্টগ্রামে সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি মিয়া।

সেখ ফজলে রাব্বি মিয়া জানান, মঙ্গলবার চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তির আগে সে কক্সবাজার সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলো। তার বাড়ি কক্সবাজারের জেলায়। তার বাবা স্থানীয় একটি এনজিও প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন।

সেখ ফজলে রাব্বি মিয়া বলেন, কক্সবাজার সরকারি হাসপাতাল থেকে আসা ওই কিশোরের জ্বর ও শ্বাসকষ্ঠ থাকায় মঙ্গলবার রাতে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে আইসোলেশনে ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তবে সে করোনাভাইরাস আক্রান্ত কিনা নিশ্চিত নই।

তিনি বলেন, কিশোরের নমুনা সংগ্রহ করে চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডে অবস্থিত বিশেষায়িত হাসপাতাল বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজে (বিআইটিআইডি) পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে পরীক্ষার ফলাফল পাওয়া গেলে করোনার বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

এদিকে কিশোরের পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, রোগীর পরিবারে কোনো বিদেশ ফেরত নেই। সে হিসেবে বিদেশ ফেরত কারো সং¯পর্শে থাকার তথ্যও নেই।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজ (বিআইটিআইডি) এর আইসোলেশনে থাকা আরফা বেগম (৫৫) নামে এক নারীর মৃত্যু ঘটে। তবে তার শরীরের নমুনা পরীক্ষায় করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়নি বলে জানান বিআইটিআইডি কর্তৃপক্ষ।