প্রচ্ছদ হেড লাইন ইউএনও’র ওপর হামলায় ফুটেজ দেখে ব্যবস্থা নেয়া হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

ইউএনও’র ওপর হামলায় ফুটেজ দেখে ব্যবস্থা নেয়া হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

বিডি রিপোর্ট টোয়েন্টিফোর ডটকম :

ব্যক্তিগত শত্রুতা বা ডাকাতির উদ্দেশে দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) ওপর হামলা হতে পারে বলে মনে করছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

বৃহস্পতিবার (০৩ সেপ্টেম্বর) তিনি জানান, নির্বাহী কর্মকর্তার ওপর দুর্বৃত্তের হামলা শত্রুতাবশত নাকি ডাকাতিজনিত বা অন্য কারণ রয়েছে কিনা এ বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। খুব শিগগিরই বিষয়টি পরিষ্কার হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

বাসা বাড়ির সিসিটিভি ফুটেজ দেখে অপরাধীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, তার অবস্থা গুরুতর আর তাকে হেলিকপ্টারে করে ঢাকার নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার চিকিৎসা চলছে। স্থানীয় প্রশাসন বিষয়টি নিয়ে তৎপর রয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে আর সরকারই এর তদন্ত করবে।

এর আগে বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে তার সরকারি বাসভবনে ঢুকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানম ও তার বাবার ওপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। অবস্থা সঙ্কটাপন্ন হওয়ায় এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় আনা হয় ইউএনওকে। হত্যার উদ্দেশেই তাদের ওপর হামলা চালানো হয় বলে জানিয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনী।

এর আগে তাকে রংপুর কমিউনিটি হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় নেয়া হয় আইসিইউতে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানান রংপুর কমিউনিটি হাসপাতালের চিকিৎসক।

বলেন, তার বামদিকের একটা হাড় ব্রেনসহ বসে গেছে নিচের দিকে। যেহেতু বাম পাশটা বসে গেছে সেহেতু ডান হাতটা একটু দুর্বল থাকবে। ব্রেনের সব জায়গায় রক্তক্ষরণ হচ্ছে।

বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানমের সরকারি বাসভবনের বাথরুমের ভেন্টিলেটর ভেঙে ভেতরে প্রবেশ দুর্বৃত্তরা। প্রথমে ওয়াহিদার বাবাকে পিটিয়ে বাথরুমে আটকে রাখে। পরে ইউএনওকে মাথায় আঘাত করে পালিয়ে যায় তারা। একপর্যায়ে গৃহপরিচারিকা তাদের রক্তাক্ত অবস্থায় দেখে স্থানীয়দের খবর দেয়। হত্যার উদ্দেশেই এ হামলা বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে র‌্যাব।

র‌্যাব – ১৩ এর অধিনায়ক কমান্ডার রেজা আহমেদ জানান, দুর্বৃত্তরা মাথায় আঘাত করে, মাথায় আঘাত করার চিহ্নটা দেখা গিয়েছে। রংপুর বিভাগীয় কমিশনার আবদুল ওয়াহাব ভুঁইয়া ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছেন।