প্রচ্ছদ জাতীয় আত্মসাৎকৃত ভিক্ষার টাকা ফেরত দিলেন খুলনা মেডিকেলের সেই চিকিৎসক

আত্মসাৎকৃত ভিক্ষার টাকা ফেরত দিলেন খুলনা মেডিকেলের সেই চিকিৎসক

Rangpur

রংপুর  :

শেষ পর্যন্ত রংপুরের দগ্ধ মোরসালিনের বাবার হাতে ভিক্ষার টাকা ফিরিয়ে দিয়েছেন খুলনা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটের বিভাগীয় প্রধান ডা. মারুফুল ইসলাম। রোববার (১৬ আগস্ট) রাতে সময় নিউজে খবর প্রকাশের পর সোমবার (১৭ আগস্ট) সন্ধ্যায় রংপুরের একটি বেসরকারি হসপিটালে ডেকে প্রতিষ্ঠানের পরিচালকের মাধ্যমে মোরসালিনের বাবা আবু তাহেরকে পঞ্চাশ হাজার টাকা ফেরত দেন ডা. মারুফুল।

‘ভিক্ষার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ চিকিৎসকের বিরুদ্ধে’ শিরোনামে রোববার রাতে সময় সংবাদের অনলাইনে খবর প্রকাশ হয়। মোরসালিনের পরিবারের সদস্যরা সময় সংবাদের কাছে অভিযোগ করেন, মোরসালিনের অপারেশনের জন্য ভিক্ষা করে তারা পঞ্চাশ হাজার টাকা ডা. মারুফুলকে দেন। কিন্তু টাকা ফেরত চাইতে গেলে ওই চিকিৎসক তালবাহানা করতে থাকেন। বদলীর পরও রংপুর মেডিকেলের বার্ন ইউনিটের বিভাগীয় প্রধান পরিচয় ব্যবহার করে নিজের কর্মস্থল খুলনা থেকে রংপুরে এসে অপারেশন করার অভিযোগ আছে ডা. মারুফুল ইসলামের বিরুদ্ধে। টাকা না পেয়ে থেমে যায় মোরসালিনের অপারেশন।

রোববার ডা. মারুফুল ইসলাম মোবাইলে টাকা নেয়ার বিষয়টি স্বীকার করলেও নানা রকম অসামঞ্জস্য কথাবার্তা বলেন। তিনি বলেন, যারা টাকা দিয়েছে তাদের পাঠান। রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে খুলনায় বদলীর পরও তিনি ব্যবস্থাপত্রে কেন রংপুর মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটের প্রধান হিসেবে পরিচয় দিচ্ছেন এবং খুলনা থেকে রংপুর এসে কেন চিকিৎসা দিচ্ছেন তার কোন উত্তর না দিয়ে ব্যস্ততার কথা বলে ফোন কেটে দেন।

সময় সংবাদে খবর প্রকাশের পর চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই মোরসালিনের বাবাকে টাকা ফেরত দেয়া হয়। টাকা ফেরত দেয়ার পর সোমবার ডা. মারুফুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

মোরসালিনের বাবা আবু তাহের ও তার প্রতিবেশী সাংবাদিক আদর রহমান বলেন, মোরসালিন রংপুর মেডিকেলে ভর্তি আছে। আরো আগে টাকাটা পেলে অপারেশনের পর মোরসালিনকে সুস্থ করা সম্ভব হতো।