রাজনীতি

আওয়ামী লীগ জনগণের সরকার নয় বলে যা ইচ্ছা তাই করছে : মোশাররফ

শেয়ার করুন

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ জনগণের সরকার নয় বলে যা ইচ্ছা তাই করছে মন্তব্য করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির অন্যতম সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, নিত্য প্রয়োজনীয় সকল দ্রব্যের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। আবার গ্যাসের দাম বাড়ানো হবে। জনগণ দুর্যোগের মধ্যে আছে। অত্যন্ত খারাপ অবস্থায় রয়েছে জনগণ। সরকার যদি জনগণের সরকার হতো তাহলে জনগণের কথা চিন্তা করত। বর্তমান সরকার জনগণের সরকার নয় বলে যা ইচ্ছা তাই করতে পারছে।

বৃহস্পতিবার বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে ইসলামী ঐক্যজোটের জাতীয় কাউন্সিলের প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ইসলামী ঐক্যজোটের জাতীয় কাউন্সিল প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক মাওলানা আব্দুল করিম খানের সভাপতিত্বে দলের সদস্য সচিব মাওলানা ইলিয়াস আতহারীর পরিচালনা সর্বসম্মতিক্রমে ইসলামী ঐক্যজোটের জাতীয় নির্বাহী কমিটি গঠন করা হয়।

মোশাররফ বলেন, আজ বাংলাদেশে যখন একটি ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে সেই সময়ে ইসলামী ঐক্যজোটের কাউন্সিল। প্রকৃতপক্ষে একটি দেশের, একটি জাতির সকল ক্ষেত্রে যখন অবক্ষয়, পচন ও মূল্যবোধসহ সবকিছু শেষ হয়ে যায় তখন একটি দেশের ক্রান্তিকাল হয়। আজ দেশে গণতন্ত্র নাই। গণতন্ত্র নেই; কারণ একজনের লোভ, একজনের লালসা চরিতার্থ করার জন্য সারা বাংলাদেশের মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকারকে হরণ করা হয়েছে। একজন মানুষের কাছে বাংলাদেশে ১৮ কোটি মানুষ বন্দী ও জিম্মি।

তিনি বলেন, রাষ্ট্র পরিচালনার জন্য একটি সরকার গঠন করা দরকার হয়। সেই সরকার যদি জনগণের সমর্থিত সরকার না হয়, জনগণের পছন্দমত না হয় তাহলে সেখানে প্রথম অনাচার ও অনৈতিক কাজ হয়।

আওয়ামী লীগকে উদ্দেশ্য করে বিএনপির এই নীতিনির্ধারক বলেন, আজ যারা সরকারের তারা জঙ্গিবাদ করে আর বলে বিএনপি জঙ্গি সংগঠন। বিশ্বের অন্যান্য দেশে মুসলিমদের বিরুদ্ধে কুৎসা রটনা করে, জঙ্গি বলে ইসলাম দমন করার চেষ্টা করছে। একই কায়দায় বাংলাদেশেও হচ্ছে। আমরা বাংলাদেশের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে চাই, গণতন্ত্র জনগণের কাছে ফিরিয়ে দিতে চাই। দেশকে একটি সুন্দর অর্থনীতি দেশ হিসাবে প্রতিষ্ঠা করতে চায়।