দক্ষিণ কোরিয়া যোগ দেবে মার্কিন বিমানবাহী রণতরীর মহড়ায়

SHARE

যুক্তরাষ্ট্রের তিনটি বিমানবাহী রণতরীর অংশগ্রহণে অনুষ্ঠেয় যৌথ সামরিক মহড়ায় যোগ দেবে দক্ষিণ কোরিয়ার যুদ্ধজাহাজ। উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে নতুন করে শক্তি প্রদর্শনের অংশ হিসেবে তারা প্রশান্ত মহাসাগরের পশ্চিমাঞ্চলে এ মহড়া চালাতে যাচ্ছে। শুক্রবার সিউলের এক সামরিক কর্মকর্তা এ কথা জানান।

বৃহস্পতিবার মার্কিন নৌবাহিনী জানায়, এ সামরিক মহড়ায় অংশ নিতে যাওয়া তিনটি জাহাজ ইউএসএস রোনাল্ড রিগান, ইউএসএস নিমিতজ ও ইউএসএস থিওডোর রুজভেল্ট প্রশান্ত মহাসাগরের পশ্চিমাঞ্চলে আন্তর্জাতিক জলসীমায় সমন্বিত এ মহড়া চালাবে। আগামী শনিবার থেকে মঙ্গলবারের মধ্যে এ সামরিক মহড়া শুরু হবে।

এক বিবৃতিতে মার্কিন প্যাসিফিক ফ্লীটের কমান্ডার স্কট সুইফট বলেন, ২০০৭ সালে এ অঞ্চলে প্রথমবারের মতো যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবাহী রণতরী এ ধরনের মহড়া চালায়।

সিউলের কর্মকর্তারা জানান, দক্ষিণ কোরিয়ার নৌবাহিনীর সাতটি জাহাজ এ যৌথ সামরিক মহড়ায় অংশ নেবে। তাদের এই সাত জাহাজের মধ্যে তিনটি ডেস্ট্রোয়ার ও চারটি ইস্কর্ট শিপ রয়েছে।

এদিকে পরমাণু ক্ষমতাধর দেশ উত্তর কোরিয়া তাদের সামরিক কৌশল বা ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার জবাবে ওয়াশিংটন ও সিউলের এ ধরণের আগ্রাসী সামরিক মহড়ার বারবার নিন্দা জানিয়ে আসছে।

উল্লেখ্য, বুধবার ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রকে ‘পরখ’ না করার ব্যাপারে উত্তর কোরিয়াকে হুশিয়ার করে দিলেও কিছুটা নরম সুরে তিনি পিয়ংইয়ংয়ের তরুণ নেতা কিম জং-উনকে একটি ‘সুন্দর ভবিষ্যতের পথ বেছে নেয়ার’ প্রস্তাব দেন।