SHARE

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘নির্বাচন বিএনপির অধিকার, সেই অধিকারেই তারা নির্বাচনে অংশ নেবে। এটা কোন সুযোগ নয়। তাহলে সংলাপ কেন? এজন্য সংলাপের তো প্রয়োজন নেই।’

শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে। আর সেই নির্বাচনের জন্য সংলাপের কোন প্রয়োজন নেই। তিনি বলেন, এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংলাপের কথা বলেছিলেন। তখন বিএনপি নানাভাবে সেই পরিবেশ নষ্ট করেছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সংলাপের পরিবেশ বিএনপিই রাখেনি। সেদিন প্রধানমন্ত্রীকে নোংরা ভাষায় অসৌজন্যমূলক কথা বলেছেন খালেদা জিয়া, মনে আছে? সেদিন প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে খালেদা জিয়া গণভবনে এলে গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক চেহারা অন্যরকম হতো। কিন্তু সংলাপের পরিবেশ তারাই নষ্ট করলেন। পুত্রহারা মাকে দেখার জন্য প্রধানমন্ত্রী যাওয়ার পর ঘরের দরজা বন্ধ করে দিয়ে সংলাপের দরজা বন্ধ করে দিলেন তিনি। তাই সংলাপের কথা বলা বিএনপির রাজনৈতিক স্ট্যান্টবাজি।’

শুক্রবার জাতির উদ্দেশে দেওয়া প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ সম্পর্কে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যের সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নয়; প্রধানমন্ত্রী পরবর্তী প্রজন্মের কথা মাথায় রেখে জাতির উদ্দেশে এই ভাষণ দিয়েছেন। তার এই ভাষণ ইতিবাচক, গঠনমূলক ও রাষ্ট্রনায়কসুলভ ভাষণ। মির্জা ফখরুল ইসলাম হয় প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ শোনেননি অথবা তিনি বোঝেন না। নেতিবাচক রাজনীতি মাথায় থাকলে ইতিবাচক ভাষণ বোঝা যায় না।

32 Views