SHARE

প্রথম প্রেমিকের সঙ্গে গোপনে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন জান্নাতুল হুমায়রা সাবা (২১)।  পরে বিষয়টি গোপন রেখে পারিবারিকভাবে আরেক প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে হয় তার।  বৃহস্পতিবার ওই তরুণীকে আগের স্বামী অপহরণ করেছে বলে থানায় অভিযোগ দেন পরের স্বামী।  শুক্রবার বিকেলে নগরীর শালবাগান এলাকার একটি বাসা থেকে আগের স্বামীসহ ওই তরুণীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমান উল্লাহ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

আগের স্বামী চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা শাখাওয়াত হোসেন শিশির (২৩) রাজশাহী ইসলামী ব্যাংক ইনস্টিটিউট অব হেল্থ টেকনোলজির শিক্ষার্থী।  পরের স্বামী কিরন নগরীর শাল বাগান এলাকার বাসিন্দা। 

ওসি আমান উল্লাহ জানান, নগরীর শালবাগান এলাকার এক যুবকের সঙ্গে ওই তরুণীর ব্যক্তিগত সম্পর্ক ছিল।  গোপনে বিয়ে করেন তারা।  এরপর গত মঙ্গলবার পরিবারের সম্মতিতে শালবাগান এলাকার আরেক যুবকের সঙ্গে বিয়ে হয় ওই তরুণীর।  ওই যুবকের সঙ্গেও তরুণীর ব্যক্তিগত সম্পর্ক ছিল।  ওই তরুণী নগরীর হেতেমখাঁ এলাকার বাসিন্দা।  তিনি নগরীর নিউ মার্কেট এলাকার একটি কোচিং সেন্টারে শিক্ষকতা করেন। 

ওসি আরও জানান, ওই তরুণী ও তার আগের স্বামীকে হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ।  ওই যুবক বিয়ের প্রমাণপত্র দেখিয়েছেন।  এ ঘটনায় দুই পরিবারের লোকজনকে থানায় ডাকা হয়েছে।  এনিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ। 

তরুণীর পরের স্বামী কিরন অভিযোগ করেন, বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টার দিকে তার স্ত্রী কোচিং সেন্টারে যান।  সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে স্ত্রীর মুঠোঠোন বন্ধ পেয়ে এসএমএস পাঠান।  এরপর রাত ৯টার দিকে তার স্ত্রী ফোন করে জানান- তাকে অপহরণ করা হয়েছে।  এরপর থেকেই তার মুঠোফোন বন্ধ। 

65 Views