SHARE

HIV হবার ১০ টি সতর্ক সংকেত- এডস্-HIV সমস্ত বিশ্বের এখন এক বড় সমস্যা। বিকাশশীল এবং অবিকাসশীল দেশে এটি একটি বিশাল বড় সমস্যা। কেবল অবিকাসশীল দেশ নয় বরং বিকাসশীল দেশেও এটি একটা অনেক বড় রোগ। এই রোগের দ্বারা অনেক লোকর মৃত্যু হয়। অসুরক্ষিত যৌন সম্পর্ক, ইনফেকশন, ব্যবহারিত ইনজেকশন এই রোগকে ছড়াতে সাহায্য করে। কিভাবে সুরক্ষিত যৌন সম্পর্ক করলে এই রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায় তার নিয়ে বিশ্ব জুড়ে জাগরণ ছড়াচ্ছে।

কোন ব্যক্তি HIV দ্বারা সংক্রমিত কিনা সেই ব্যাপারে জানতে অনেক দেরি লাগে।

 

কোন কোন সময়ে সে বুঝতেই পারেনা যে সে HIV দ্বারা সংক্রমিত। কিছু এমন লক্ষণ যার ব্যাপারে জেনে যা থেকে আপনি বুঝতেই পারবেন যে আপনি HIV দ্বারা সংক্রমিত কিনা।

দীর্ঘকালীন জ্বর –

জ্বর হওয়া একটা সাধারন ব্যাপার।‌ কিন্তু যদি আপনার জ্বড় দীর্ঘ সময় পর্যন্ত থাকে এবং ঘন ঘন হয় তবে এটি এইচআইভি পজেটিভ এর লক্ষন। তাই সময় থাকতে তার চিকিৎসা করানো খুবই দরকার ।

ক্লান্তি –

এইচআইভির জীবানু আমাদের শরীরের কার্যক্ষমতা রোধ করে। যার ফলে আমরা কোন কাজ করতে গেলেই ক্লান্তি বোধ হয়। এমনকি ছোটখাট কাজে করলেও আমাদের শরীরের ক্লান্তি এসে যায়।

গাঁটে গাঁটে ব্যাথা –

এইচআইভি সংক্রমিত হলে শরীরের মাসপেশিগুলোতে আগে সংক্রমিত হয়।

তাই এইচআইভি পজেটিভ একজন রোগীর শরীরে পেশীতে ব্যাথা সারাক্ষণই লক্ষ্য করা যায়।

মাথাব্যথা ও গলা খুসখুস –

এইচআইভিতে সংক্রমিত কোন ব্যক্তির শরীরে রোগ-প্রতিরোধক্ষমতা আস্তে আস্তে কমে যেতে থাকে। তাই তাদের প্রায়ই দেখা যায় মাথাব্যথা এবং গলা খুসখুস এর মতন রোগ।

ত্বকের মধ্যে চুলকুনি এবং তার সাথে দাগ –

বলে যে যেকোনো রোগ হলে আমাদের ত্বক সেটা সবার আগে জানিয়ে দেয়।

এইচআইভি পজেটিভ কোন ব্যক্তির শরীরেও সেটিও লক্ষ্য করা যায়। এইচআইভি পজেটিভ কোন ব্যক্তির শরীরে তখন চুলকুনি এবং তার সাথে দাগ ফুটে ওঠে।

ওজন কমে যাওয়া –

সংক্রমিত কোন ব্যক্তির ওজন হঠাৎই সাংঘাতিক রকম ভাবে কমে যায়।

কারণ এই সময় আমাদের পছন্দের খাবারের দিকে আমাদের লালসা কমে যায় এবং খাওয়ার প্রতি ইচ্ছা আস্তে আস্তে মরে যেতে থাকে।

শুকনো কাশি –

সবসময় শুকনো কাশি হওয়াও এইচআইভি পজেটিভ এর একটা বড় লক্ষণ

রাতে অতিরিক্ত ঘাম হওয়া –

এই রোগের আরেকটি লক্ষণ হলো রাতে ঘুম না আসা। খুবই শ্বাসকষ্ট হওয়া এবং অস্থিরতা বোধ হওয়া। যার ফলে ঘুম একদমই আসতে চায় না।

অস্বাস্থ্যকর এবং হলুদ নখ –

এইচআইভি তে শিকার হওয়া কোন লোকের নখগুলি অস্বাস্থ্যকর এবং হলদে হয়ে যায় এবং এই অস্বাস্থ্যকর হলুদ নখই জানিয়ে দেয় যে আপনি এইচআইভি পজেটিভ।

একাগ্রতায় কোমতি –

এই রোগের আরেকটি সবথেকে বড় লক্ষণ হল একাগ্রতায় কমতি।

এই রোগ হওয়ার পর কোন মানুষই কোন কাজ একাগ্রভাবে করতে পারেনা। যদি আপনারও এর মধ্যে কোনো লক্ষণ থাকে তাহলে এখুনি চিকিৎসকের সাথে যোগাযোগ করুন। কারণ আপনিও তাহলে এইচআইভি পজেটিভ হতে পারেন।

58 Views