‘হারভে আমাকে জোর করে চুমু দেয়ার চেষ্টা করেন’

হলিউডের চলচ্চিত্র প্রযোজক হারভে ওয়েইনস্টেইনের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ আনলেন এবার ফরাসি অভিনেত্রী, বন্ড গার্ল হিসেবে পরিচিত লিয়া সেইডোক্স । তিনি বলেছেন, প্যারিসে এক হোটেল রুমে হারভে আমার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন এবং আমাকে চুমু দেয়ার চেষ্টা করেন। এর মধ্য দিয়ে হারভের বিরুদ্ধে একই রকম যৌন হয়রানির অভিযোগকারী হলিউড অভিনেত্রীদের তালিকায় যোগ হলো আরো একটি নাম। এ নিয়ে বুধবার লন্ডনের দ্য গার্ডিয়ানের সঙ্গে কথা বলেছেন লিয়া সেইডোক্স। এতে তিনি সাফ সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, কিভাবে তার ক্যারিয়ার উন্নত করা নিয়ে তাদের মধ্যে প্যারিসে এক হোটেল কক্ষে কথা হয়েছিল। সেখানে তাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন হারভে। এক পর্যায়ে লিয়া সেইডোক্স’র কাছ থেকে যৌন সুবিধা নিতে জোর প্রয়োগ করেন তিনি। উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক বন্ড সিরিজের সর্বশেষ ছবি ‘স্পেক্টর’-এ অভিনয় করার মাধ্যমে সম্ভবত সবচেয়ে বেশি সুনাম কুড়িয়েছেন। কিন্তু ২০১৩ সালের ছবি ‘ব্লু ইন দ্য ওয়ার্মেস্ট কালার’ ছবিতে অভিনয় করার কারণে হারভের চলচ্চিত্র জগতে লিয়া সেইডোক্স ছিলেন খুব প্রিয়। তিনি বলেছেন, এই ছবিটি আসার প্রায় এক বছর আগের কথা। প্যারিসে এক ফ্যাশন শো’তে হারভের সঙ্গে সাক্ষাত হয় লিয়া সেইডোক্সের। তখন হারভে ছিলেন প্যারিসের হোটেল প্লাজা এথিনি’তে। তিনি আমাকে তার হোটেল স্যুটে আমন্ত্রণ করলেন। বললেন, আমার ক্যারিয়ার নিয়ে তিনি আলোচনা করতে চান। শুনে মনে হলো তিনি আমাকে ভাল কোনো চরিত্রে অভিনয়ের আমন্ত্রণ জানাচ্ছেন। কিন্তু তিনি যে এর বিনিময়ে অন্য কিছু চাইছেন তা আমি বুঝতে পারি নি। ওই সাক্ষাতটা যে আলোচনা বা কাজ নিয়ে তা নয়। তার উদ্দেশ্য ছিল ভিন্ন। আমি সেটা হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছিলাম। আমি হোটেল স্যুটে যাওয়ার পর তিনি সারাক্ষণ আমার দিকে তাকিয়ে রইলেন। তার চোখের চাহনি ছিল ক্ষুধাতুর। কামাতুর। এমনভাবে আমার দিকে তাকিয়ে ছিলেন যেন আমি একটি মাংসের পিন্ড। তবে তখন তার সামনে তেমন কোনো কথা বলতে পারি নি। কারণ, তিনি অনেক বেশি নামকরা মানুষ। তার শক্তি অনেক। আমাকে হোটেলে অভ্যর্থনা জানিয়েছিলেন হারভে ও তার একজন যুবতী সহকারী। এক পর্যায়ে আমাকে নিয়ে বসানো হয় সোফায়। কথার এক পর্যায়ে তিনি আকস্মিকভাবে আমার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন। আমাকে চুমু দেয়ার চেষ্টা করেন। এ সময় আমাকে আত্মরক্ষার চেষ্টা করতে হয়েছিল। তিনি ছিলেন বিশাল দেহের অধিকারী ও মোটা। তাই তাকে সরাতে আমাকে খুব বেশি শক্তি ব্যবহার করতে হয়েছিল। এ ঘটনা ঘটে যখন তার যুবতী সহকারী আমাদেরকে রুমে একা রেখে যান। তিনি চলে যাওয়ার পরই আমার দিকে তাকিয়ে হাসতে থাকেন হারভে। বার বার আমার ঠোঁটে চুমু দেয়ার চেষ্টা করেন। তিনি আবার একই চেষ্টা করেন। আমি শরীরের শক্তি দিয়ে তাকে সরিয়ে দিই। আমি মনে করেছিলাম যেহেতু আমি বাধা দিচ্ছি তাই তিনি আমাকে সম্মান দেখাবেন। আমার সঙ্গে এমন আচরণ করবেন না। তিনি একজন অত্যন্ত ছোটমানের মানুষ। তিনি ওইদিন আমাকে চুমু দিতে পেরেছিলেন কিনা তা আমার ঠিক মনে নেই। এর পরেই আমি ওই ঘটনা অনেক বন্ধুবান্ধব ও এজেন্টকে জানিয়েছিলাম। তখন আমার এজেন্ট আমাকে তার কাছ থেকে দূরত্ব বজায় রাখার পরামর্শ দিয়েছিল। হোটেলের ওই রাতের ঘটনার পর অনেক অনুষ্ঠানে তার সঙ্গে আমার দেখা হয়েছে। আমরা তো কাজ করি একই শিল্পে। তাই তাকে একেবারে এড়িয়ে যাওয়া অসম্ভব।