র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার জোড়ারগঞ্জে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে র‌্যাবের সঙ্গে গুলিবিনিময়ের পর দিদার নামে এক মাদক ব্যবসায়ী লাশ উদ্ধার করেছে র‌্যাব। আজ বৃহ¯পতিবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ঘটনাস্থলের দু’পাশে যানজট সৃষ্টি হয়। যানবাহনে থাকা যাত্রীদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। র‌্যাব ওই সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, ৬০০ বোতল ফেনসিডিলসহ একটি মাইক্রোবাস জব্দ করে।

র‌্যাব-৭ এর পরিচালক লে. কর্নেল মিফতা উদ্দিন আহমেদ জানান, ঢাকা থেকে দুটি মাইক্রোবাসে করে বিপুল পরিমাণ ফেনসিডিল চট্টগ্রামে আনা হচ্ছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি দল মিরসরাইয়ের জোড়ারগঞ্জে মহাসড়কে অবস্থান নেয়।

ভোর সাড়ে ৫টার দিকে মাইক্রোবাস দুটিকে থামার সংকেত দিলে সামনে থাকা মাইক্রোবাস থেকে র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়া হয়। এসময় র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। একপর্যায়ে প্রথম মাইক্রোবাস থেকে কয়েকজন নেমে পেছনে থাকা মাইক্রোবাসে উঠে পালিয়ে যায়।

পরে ঘটনাস্থলে ফেলে যাওয়া মাইক্রোবাস থেকে মাদক ব্যবসায়ী দিদারের মরদেহ উদ্ধার করে র‌্যাব। তার হাতে থাকা বিদেশি পিস্তলটিও উদ্ধার করা হয়। মাইক্রোবাসটি জব্দ এবং তা থেকে ৬০০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়।

মিফতা উদ্দিন আহমেদ বলেন, গুলিবিনিময়ে আরও এক মাদক ব্যবসায়ী আহত হয়েছে। তবে তাকে সহযোগীরা অপর মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যেতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় জোরারগঞ্জ থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ও চোরাচালান আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে।