৪৫ সেকেন্ডের টর্নেডোয় লণ্ডভণ্ড লালপুর

নাটোরের লালপুরের ৮ টি গ্রামের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া  প্রায় ৪৫ সেকেন্ডের টর্নেডোয় ৩ শতাধিক বাড়িঘড় ও একটি স্কুলের চালা উড়ে গেছে। ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে ফসলেরও। গাছ ও গাছের ডালপালা ভেঙ্গে পড়ায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে গেছে। এ সময় আহত হয়েছে অতন্ত ১০ জন। এদের মধ্যে ৫ জনকে লালপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। ঝড় থামার পরপরই স্থানীয় সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজাদ,  নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস্ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী মিজানুর রহমান, লালপুরের ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু তাহির(এসি ল্যান্ড)সহ সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরা বিধ্বস্ত এলাকা পরিদর্শনে যান। লালপুরের ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু তাহির, আড়বাব ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইসাহাক আলী ও এলাকাবাসী জানান, বুধবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে হঠাৎ করেই ঝড় শুরু হয়। ঝড়ে বিধ্বস্ত এলাকা পরিদর্শনে যাওয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) আবু তাহির জানান, তিনি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজাদ ঘটনার পরপরই বিধ্বস্ত এলাকা পরিদর্শন করেন। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যানদের ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরীর নির্দেশ দিয়েছেন। নাটোরের জেলা প্রশাসক শাহিনা খাতুন বলেন, খবর পাওয়ার পর স্থানীয় ভারপ্রাপ্ত ইউএনও এবং পিআইও অফিসের কর্মকর্তাদের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকা তৈরীর নির্দেশ দেয়া হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ঢেউটিন এবং কিছু ত্রাণ দেয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছি।