নিষ্ঠুরতার নতুন নতুন কৌশল দেখাচ্ছে সরকার: ফখরুল

নিপীড়নের মাত্রা বাড়িয়ে সরকার নিষ্ঠুরতার নতুন নতুন কৌশল দেখাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সারাদেশে বিএনপি নেতাদের ধরপাকড়ের প্রতিবাদে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ মন্তব্য করেন। বিএনপি মহাসচিব বলেন, বর্তমান সরকার ভোটারবিহীন নির্বাচনের মাধ্যমে জোর করে ক্ষমতাসীন হওয়ার পর থেকে বিএনপিসহ বিরোধী দলীয় নেতা-কর্মীদের ওপর নির্যাতনের মাত্রা সীমাহীন পর্যায়ে নিয়ে গেছে। নিপীড়ণের মাত্রা বাড়িয়ে গুম, খুন, অপহরণ, মিথ্যা মামলা দায়ের এবং তড়িঘড়ি করে চার্জ গঠনের মাধ্যমে বর্তমান আওয়ামী সরকারের অমানবিক নিষ্ঠুরতার নতুন নতুন কৌশল দেশবাসী প্রত্যক্ষ করছে। সরকার জুলুুম-পীড়ণের মধ্যদিয়ে জনগণকেই পিষ্ট করতে চাইছে। তারা মনে করছে, জনগণের দিক থেকে কোনো প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে না। মির্জা আলমগীর বলেন, কোন অশুভ পরিকল্পনাই জনগণের সাহসী ঐক্যবদ্ধ শক্তির কাছে কখনোই টিকে থাকতে পারে না। মানুষের কন্ঠরোধে নানাবিধ নীতি প্রনয়ণের পরও স্বস্তি পাচ্ছে না সরকার। তাই বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনগুলোর নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দুরভীসন্ধিমূলক মামলা দিয়ে রাজনৈতিক কর্মকা- থেকে দুরে রাখার ষড়যন্ত্র করছে। কিন্তু ইতিহাস সাক্ষ্য দেয়-বিশ্বের সকল স্বৈরাচারী সরকারকেই জনগণের সম্মিলিত শক্তির কাছে পরাজিত হতে হয়েছে। অবিলম্বে গ্রেপ্তারকৃতদের মুক্তি দেয়ার দাবি জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব। পুলিশী লাঠিচার্জে আহত নেতাকর্মীদের আশু সুস্থতা কামনা করেন তিনি। এদিকে পুর্ব ঘোষিত কর্মসূচি হিসেবে বিক্ষোভ মিছিল করেছে স্বেচ্ছাসেবক দল। সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি শফিউল বারী বাবু ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূইয়া জুয়েলের নেতৃত্বে রাজধানীর কাকরাইল মোড়ে মিছিল করে স্বেচ্ছাসেবক দল। অন্যদিকে ঢাকা মহানগর উত্তর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি ফখরুল ইসলাম রবিন ও সাধারণ সম্পাদক গাজী রেজওয়ান উল হোসেন রিয়াজের নেতৃত্বে আরেকটি বিক্ষোভ মিছিল হয়। এদিকে সারাদেশে সংগঠনের নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ ও মুক্তির দাবি জানিয়েছে স্বেচ্ছাসেবক দল