তফসিল ঘোষণার পর সংসদ ভেঙ্গে দেয়ার প্রস্তাব জাপার

সব দলের অংশগ্রহণ এবং সবার জন্য সমান সুযোগ নিশ্চিত করতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েনসহ ৮ দফা দাবি জানিয়েছে জাতীয় পার্টি৷ সোমবার রাজধানী আগারগাঁও নির্বাচন ভবনের সম্মেলন কক্ষে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সঙ্গে সংলাপে দলটি এ দাবি জানায়। প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংলাপে জাতীয় পার্টির পক্ষে নেতৃত্ব দেন দলটির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। ২৬ সদস্যের প্রতিনিধিদলে আরও অংশ নেন পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, জিএম কাদের প্রমুখ। সেনা মোতায়েন ছাড়াও দলটির প্রস্তাবের মধ্যে রয়েছে- নির্বাচন কমিশনকে সম্পূর্ণ স্বাধীনভাবে কাজ করার সুযোগ দিতে হবে। অন্তর্বর্তী সরকার নির্বাচন কমিশনের কাজে কোনো হস্তক্ষেপ করতে পারবে না। নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর সংসদ ভেঙে দিতে হবে। আনুপাতিক হারে সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী সব দলের সদস্যকে নিয়ে অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করতে হবে। এ ছাড়া দলীয় প্রধানের সুপারিশের ভিত্তিতে অন্তর্বর্তী সরকারের মন্ত্রী নিয়োগ করতে হবে। সিডিউল ঘোষণার পর জেলা-উপজেলা পর্যায়ে বিতর্কিত কর্মকর্তাদের মাঠে রাখা যাবে না। প্রার্থীর নির্বাচনী ব্যয় ৮ লাখ টাকা করতে হবে।