সিসিটিভি ফুটেজে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের দুই ‘খুনি’

রাজধানীর টিকাটুলির কে এম দাস লেনে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আবু তালহা (২২) নিহতের ঘটনায় সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করেছে পুলিশ। ফুটেজ দেখে এরই মধ্যে দুইজন সন্দেহভাজনকে শনাক্ত করা হয়েছে। রোববার দুপুরে ওয়ারি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম পরিবর্তন ডটকমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ছিনতাইকারীদের ধরতে আমরা জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছি।

ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। সেগুলো ধরেই আমরা তদন্ত কাজ এগিয়ে নিচ্ছি। আশা করছি, খুব তাড়াতাড়িই তাদের গ্রেফতার করা সম্ভব হবে।

এর আগে রোববার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে তালহার মৃত্যু হয়। তিনি ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের আশুলিয়া শাখার কম্পিউটার সায়েন্সের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন। তিনি কুমিল্লার বড়ুরার দেওড়া গ্রামের নূর উদ্দিনের ছেলে। পরিবারের সঙ্গে টিকাটুলির ১২/২ কে এম দাস লেনের বাসায় থাকতেন তিনি।

নিহতের বাবা নুর উদ্দিন জানান, সকাল সাড়ে ৬টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আশুলিয়া ক্যাম্পাসে যাওয়ার জন্য বাসার সামনে থেকে রিকশায় করে যাত্রাবাড়ী যাচ্ছিলেন তালহা। বাসা থেকে মাত্র ১০০ গজ দূরে যাওয়ার পর কয়েকজন ছিনতাইকারী তার গতিরোধ করে। তাকে ছুরিকাঘাত করে সঙ্গে থাকা মোবাইল ফোন ও টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে সকাল সোয়া ৮টার দিকে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মো. বাচ্চু মিয়া জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মর্গে রয়েছে।