রাবি শিক্ষককে মারধরের ঘটনায় তদন্ত কমিটি

ইন্টার্নশিপ পেপারে স্বাক্ষরকে কেন্দ্র করে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউটের (আইবিএ) এক ছাত্রের হাতে শিক্ষক লাঞ্ছিত ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। ইতোমধ্যে কমিটি ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ব্যক্তির সাক্ষাৎকার ও তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করছে বলেও জানা গেছে।

জানা যায়, ২৫ সেপ্টেম্বর দুপুরে রাবি শিক্ষক প্রফেসর ড. মোহা. হাছানাত আলীকে মারধর করে ওই ইনস্টিটিউটের সান্ধ্যকালীন ব্যাচের শিক্ষার্থী নাহিদ মো. হায়দার। এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ৪ অক্টোবর রসায়ন বিভাগের শিক্ষক প্রফেসর চৌধুরী মো. জাকারিয়াকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করে।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- আইন বিভাগের শিক্ষক প্রফেসর হাসিবুল আলম প্রধান ও অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক সহযোগী অধ্যাপক ড. আবু শামস মো. রেজাউল হাসান করিম বাকশী।

এর আগে গত ২৭ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ ভিসি প্রফেসর ড. এম আব্দুস সোবহানের সাথে দেখা করে অপরাধী ছাত্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানান।

তদন্ত কমিটির প্রধান প্রফেসর চৌধুরী মো. জাকারিয়া বলেন, ‘তদন্ত কমিটির কাজ চলছে। প্রশাসন যে সময় বেঁধে দিয়েছে, আশা করি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই তদন্ত কাজ শেষ করতে পারব।’

হামলার শিকার শিক্ষক প্রফেসর হাছানাত আলী বলেন, ‘আমাকে আগামী ১০ তারিখে সাক্ষাতের জন্য ডাকা হয়েছে। আশা করি সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে ওই ছাত্রের বিরুদ্ধে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করবে তদন্ত কমিটি।’