‘একাধিক নারীর সঙ্গে তার সম্পর্ক রয়েছে’

অবশেষে স্বামীকে ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জনপ্রিয় পপ তারকা মিলা ইসলাম। খুব শিগগিরই এর আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হবে বলে নিশ্চিত করেছেন মিলা। মিলাকে মারধরের অভিযোগে গত বৃহস্পতিবার গ্রেপ্তার করা হয় তার স্বামী পারভেজ সানজিরকে। মিলার নারী ও শিশু নির্যাতন মামলার বিপরীতে শুক্রবার পাঁচদিনের রিমান্ড চেয়ে পারভেজকে আদালতে পাঠানো হয়। এদিকে গতকাল সকালেই ডিভোর্সের সিদ্ধান্তের বিষয়টি জানান মিলা। এর কারণও ব্যাখ্যা করেন এ জনপ্রিয় তারকা। এ বিষয়ে মিলা বলেন, আমি ডিভোর্সের পাকাপাকি সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ১০ বছর সম্পর্কের পর আমি পারভেজকে বিয়ে করেছিলাম। কিন্তু একাধিক নারীর সঙ্গে তার সম্পর্ক রয়েছে। বিয়ের ১৩ দিন যেতে না যেতেই আমি বিষয়টি জানি। সে আমার সঙ্গে প্রতারণা করে আসছে অবিরত। কোনো স্ত্রী তার স্বামীর এসব সম্পর্কের বিষয়টি মানবে না। আমি অনেক চেষ্টা করেছি তাকে ফেরাতে। কিন্তু সেটা হয়নি। জীবনে সততার চেয়ে বড় আর কিছু নেই। এতটা দীর্ঘ সময় সম্পর্কের পরও আমি তার সততা পাইনি। এটি কোনো তারকা কিংবা শিল্পীর বিষয় নয়। এটা ন্যূনতম শ্রদ্ধাবোধ ও সততার ব্যাপার তার স্ত্রীর প্রতি। একজন মানুষ হিসেবে এমন অসততা আমি মেনে নিতে পারি না। কোনো পুরুষ তার স্ত্রীর একাধিক সম্পর্ক যেমন মেনে নেবে না, তেমনি স্ত্রীও পারবে না তার স্বামীর এতগুলো সম্পর্ক মেনে নিতে। মিলা আরও বলেন, আমি ফেরাতে চেয়েছিলাম তাকে। চেয়েছিলাম একসঙ্গেই থাকবো আজীবন। পারভেজ একটি বেসরকারি এয়ারলাইন্সের পাইলট। আমি তার কর্মস্থলের এমডির সঙ্গেও এ বিষয়ে কথা বলি। তিনিও আমাকে আশ্বস্ত করেছিলেন এ ব্যাপারে সহযোগিতা করার। পরে তিনি পারভেজের সঙ্গে কথাও বলেন। জানতে চান কোন কোন এয়ারহোস্টেজের সঙ্গে তার সম্পর্ক রয়েছে। এ রকম আর না করার কথাও বলেন তিনি। কিন্তু কিছুই পরিবর্তন হয়নি। পারভেজ আমাকে মানসিক নির্যাতনের পর শারীরিক নির্যাতনও শুরু করেছিল। কিন্তু আর সহ্য করা যাচ্ছিল না। অন্যদিকে আমি জানি অনেক তরুণী আমাকে আদর্শ হিসেবে মানে। সেদিক থেকে আমি পরিবারের সঙ্গে কথা বলে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করি। এবার আপনি কি করবেন? মানে পদক্ষেপ কি হবে আপনার? মিলা বলেন, ডিভোর্স ছাড়াতো আর কিছু করার নেই আমার। কারণ আমিতো কম চেষ্টা করিনি। শারীরিক নির্যাতনের শিকারও হয়েছি। আর কত মেনে নেবো। আমার কাছে ডিভোর্সটা এত সহজ ছিল না। আমি কয়েক দফা ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নিয়ে তা বদল করেছি। কিন্তু এবার আর নয়। আমি তাকে পাকাপাকি ডিভোর্স দেবো। উল্লেখ্য, মিলা ইসলাম চলতি বছরের ১২ই মে একটি বেসরকারি এয়ারলাইন্সের পাইলট পারভেজ সানজিরকে বিয়ে করেছিলেন। এর আগেহ ১০ বছরের সম্পর্ক ছিল তাদের। কদিন আগেই সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ পায় মিলা ও পারভেজের সম্পর্কের অবনতির বিষয়টি। কিন্তু তখন স্বামীকে ডিভোর্স না দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি। অবশেষে এবার এ ঘটনার পর ডিভোর্সের নতুন সিদ্ধান্তের কথা জানালেন মিলা।