‘কূটনৈতিক তৎপরতায় এতিম সরকার’

রোহিঙ্গা সঙ্কট

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, বাংলাদেশ যদি সঠিকভাবে কূটনৈতিক তৎপরতা চালাত তবে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর পক্ষে এত বড় গণহত্যা চালানো সম্ভব হতো না। সরকারের কূটনৈতিক ব্যর্থতার কারণেই রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী গণহত্যার শিকার হয়েছে এবং ১০ লাখের মতো রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশ করতে বাধ্য হয়েছে। রোহিঙ্গা সঙ্কট নিরসনে কূটনৈতিক তৎপরতায় এতিম সরকার। আজ শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এক স্মরণ সভায় তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বিগ্রেডিয়ার জেনারেল (অব.) আ স ম হান্নান শাহর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এ স্মরণ সভার আয়োজন করা হয়। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী প্রমুখ। সভায় ড. মোশররফ আরও বলেন, জাতিসংঘকে উদ্যোগী হয়ে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারকে বাধ্য করতে হবে। জাতিসংঘ কিভাবে বাধ্য করবে? সেটা হলো মিয়ানমারকে বয়কটের রেজ্যুলেশন, সহযোগিতা বন্ধ করে দিতে হবে, তাদের সাথে ব্যবসা বাণিজ্য বন্ধ করে দিতে হবে। সেইফ জোনে বিশ্বাস করি না, পুর্নবাসন করতে হবে। তবেই রোহিঙ্গাদের নিতে তারা বাধ্য হবে। তিনি বলেন, জনগণের সরকারই পারবে কূটনৈতিক তৎপরতা ভালোভাবে চালাতে। জনগণের সরকার নাই বলে আজকে এই কূটনৈতিক তৎপরতায় ব্যর্থতা আমরা দেখতে পাচ্ছি।