এক্সক্লুসিভ সংবাদ

স্ত্রী বয়সে বড় হলে যে ৪ টি সমস্যা হবেই, ৩ নং টি খুব ভয়ঙ্কর, সাবধান

বাস্তব সমাজে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় স্বামী স্ত্রীর থেকে বয়সে বড় হয়, অনেক সময় দুজন সমবয়সী ও হয়। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে এমনটাও হয়ে থাকে মেয়েরা ছেলেদের থেকে বয়সে বড় হয় কারণ ভালোবাসা কোনো বয়স মানে না।যে কোনো বয়সে প্রেম হতে পারে। এমনকি বিয়েও হতে পারে। কিন্তু অসম’ বয়সের এই ধরণের সম্পর্ক সহজে মেনে নিতে চায় না আমাদের সমাজ। এই বিভেদ আমাদের সমাজ ব্যবস্থার ই তৈরি করা। তবে বাস্তব জীবনেও বয়সের পার্থক্যের কারণে ভবিষ্যতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যেও সমস্যা দেখা দেয়। আসুন দেখে নিই স্ত্রী বয়সে বড় হলে দাম্পত্য জীবনে কী ধরনের সমস্যা হতে পারে।

পারিবারিক ও সামাজিক সমস্যা : স্ত্রী বয়সে বড় হলে স্বামী-স্ত্রী দুজনকেই নানা রকম পারিবারিক ও সামাজিক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। ফলে উভয়ের মধ্যেই মানসিক চাপের সৃষ্টি হয়। এই মানসিক চাপের ফলে দূরত্ব সৃষ্টি হয়। এমনকী ভেঙে যেতে পারে সম্পর্ক।

অ্যাডজাস্টমেন্ট এর সমস্যা : স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্যের কারণে তাদের দুজনের চিন্তা ভাবনা ও আচার-আচরণের মধ্যে নানা পার্থক্য দেখা দেয়। ফলে হতে পারে ভুল-বোঝাবুঝি এবং সেই সঙ্গে হতে পারে মানিয়ে নেওয়ার সমস্যা। ভেঙে যেতে পারে সংসার ও।

গর্ভধারণে সমস্যা : সাধারণত ৩০-৩৫ বছরের পরেই গর্ভধারণের ব্যাপারটি মেয়েদের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে যায়। তাই স্ত্রীর বয়স বেশি হলে তা আরো বেশি সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে।

যৌ*নজীবনে সমস্যা : স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বয়সের পার্থক্য খুব বেশি হলে একটা সময়ে গিয়ে যৌ*নজীবনে সমস্যার সৃষ্টি হয়। কারণ মেনোপজ এর পর স্ত্রীর যৌন আকাঙ্খা কমে আসলেও ছেলেদের যৌ*ন চাহিদা দীর্ঘ দিন পর্যন্ত বজায় থাকে আর এর ফলে দাম্পত্য সম্পর্কে কলহ সৃষ্টি হয়।

SHARE