আইন আদালত

সুবর্ণচর গণধর্ষণ মামলার ৭ আসামি ৫ দিনের রিমান্ডে

নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরজুবলী ইউনিয়নের চর মধ্য বাগ্যা গ্রামে গৃহবধূ গণধর্ষণের ঘটনায় ৭ জন আসামির প্রত্যেকের ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও চর জব্বর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) ইব্রাহিম খলিল ২ নং আমলি আদালতে এজাহারভুক্ত আসামিদের প্রত্যেকের ৭ দিন করে রিমান্ড এর আবেদন করেন। রবিবার দুপুরে শুনানি শেষে বিজ্ঞ আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নবমিতা গুহ প্রত্যেক আসামীর ৫ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

৭ আসামি হলো মূল ইন্ধনদাতা রুহুল আমিন, মূল হোতা হাসান আলী বুলু, প্রধান আসামী সোহেল, স্বপন, বাদশা আালম ওরফে বাসু ওরফে কুড়াইল্যা বাসু, বেচু ও জসিম।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও চর জব্বর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) ইব্রাহিম খলিল জানান, আটককৃত ৭ জনের প্রত্যেকের ৭ দিন করে রিমান্ড চাওয়া হয়। আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নবনীতা গুহ প্রত্যেক আসামির ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

জেলা পুলিশ সুপার ইলিয়াছ শরীফ জানান, গণধর্ষণের মামলায় এজাহারভুক্ত ৯ জনের মধ্যে ৫ জন ও অভিযুক্ত মূল হোতা ৩ জনসহ ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রবিবার ভোরে ফেনী জেলার সদর উপজেলার সুলতানপুর গ্রাম থেকে এজাহারভুক্ত ৯ নম্বর আসামি সালাউদ্দিনকে গ্রেফতার করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। এ নিয়ে এই মামলায় এজাহারভুক্ত ৫ জন (বাদশা আালম ওরফে বাসু ওরফে কুড়াইল্যা বাসু, স্বপন, বেচু, সোহেল ও সালাউদ্দিন) এবং তদন্তে জড়িত সন্দেহে ৩ জন (মূল ইন্ধনদাতা রুহুল আমিন, মূল হোতা হাসান আলী রুলু ও জসিম) কে গ্রেফতার করে। এ ছাড়া, অন্য আসামীদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।