শিক্ষাঙ্গন

রাবিতে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, সেই শিক্ষককে অব্যাহতি

রাবি প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইআর) সহকারী অধ্যাপক বিষ্ণু কুমার অধিকারীকে দ্বিতীয় ও চতুর্থ বর্ষের দুইটি কোর্স থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া অভিযোগের সত্যতা যাচাইয়ে ইনস্টিটিউটের পরিচালককে সভাপতি করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার (২৫ জুন) রাতে ইনস্টিটিউটের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বুধবার (২৬ জুন) বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করে ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক মো. আবুল হাসান চৌধুরী বলেন, গতকাল চতুর্থ বর্ষের এক ছাত্রী লিখিত অভিযোগ দেওয়ার পর দ্বিতীয় বর্ষের আরেক ছাত্রী মৌখিক অভিযোগ দিয়েছে। যেহেতু অভিযুক্ত শিক্ষকের দুটি বর্ষেই কোর্স রয়েছে তাই যাতে পরীক্ষার খাতায় এর কোনো প্রভাব না পড়ে তাই ওই কোর্স দুটি থেকে বিষ্ণু কুমারকে সাময়িক অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

তদন্ত কমিটির অগ্রগতির বিষয় জানতে চাইলে তিনি বলেন, আগামী সাত জুলাই থেকে ইনস্টিটিউটের সকল বর্ষের সেমিস্টার ফাইনাল শুরু হচ্ছে। তাই বিভাগে কাজের চাপ রয়েছে। তবে আমরা চেষ্টা করছি যতদ্রুত সম্ভব তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার।

প্রসঙ্গত, গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের সহকারী অধ্যাপক বিষ্ণু কুমার অধিকারীর বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির লিখিত অভিযোগপত্র জমা দেয় ইনস্টিটিউটের চতুর্থ বর্ষের এক শিক্ষার্থী এবং মৌখিক অভিযোগ করে দ্বিতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থী।

এছাড়া এর আগে বিষ্ণুকুমার অধিকারীর বিরুদ্ধে ইনস্টিটিউটের সান্ধ্যকোর্সের একাধিক ছাত্রী হয়রানীর অভিযোগ তোলেন এবং পরীক্ষা কমিটির চেয়ারম্যানের কাছে তাকে কোর্স থেকে অব্যহতির অনুরোধ জানান । এ কারণে তাকে ওই ব্যাচের অ্যাকাডেমিক কার্যক্রম থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়।

তবে শুরু থেকে বিষয়টি অস্বীকার করে আসছে অভিযুক্ত সহকারী অধ্যাপক বিষ্ণু কুমার অধিকারী। এবং ষড়যন্ত্র করে তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে বলে তিনি বাদি করেন।