আজকের সেরা সংবাদ

রাখাইনে রোহিঙ্গাদের জন্য সেফজোন করতে হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গাদের জন্য সেফজোন তৈরি করতে হবে। এবিষয়ে সরকার নতুন করে কাজ শুরু করেছে। বললেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

আজ রোববার রাজধানীর হোটেল কন্টিনেন্টালে এক সেমিনারে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।বাংলাদেশ ও মানবাধিকার শীর্ষক এক সেমিনারের আয়োজন করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও ঢাকার জাতিসংঘ অফিস।

সেমিনারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জাতিসংঘের বাংলাদেশে আবাসিক প্রতিনিধি মিয়া সেপ্পো।পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, রোহিঙ্গাদের জন্য রাখাইনে সেফজোন তৈরি করতে হবে। আমরা এটা নিয়ে নতুন করে কাজ করছি। সেফজোনে ভারত, চীনসহ আশিয়ান দেশের সদস্যরা সহযোগিতা দিতে পারে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় না দিলে সেখানে গণহত্যা হতো। আর সেটা হলে বিশ্বনেতারা মুখ দেখাতে পারতেন না। সরকার মানবাধিকার রক্ষায় সচেষ্ট। রোহিঙ্গা পুনর্বাসন দীর্ঘায়িত হলে বাংলাদেশে উগ্রপন্থার সৃষ্টি হতে পারে।

এর আগে গতকাল শনিবার ভারত সফর শেষ বিমানবন্দরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাখাইনে সেফ জোন গঠনের যে প্রস্তাব দিয়েছেন, এই প্রস্তাবকে সাধুবাদ জানিয়েছে ভারত। দেশটির সরকার এ বিষয়টি নিয়ে কাজ করবে বলেও আশ্বাস দিয়েছে।