রংপুর বিভাগ

রনজিনা মৃত্যুর ঘটনায় আদালতে মামলা দায়ের

স্টাফ রিপোর্টার ।। ঠাকুরগাঁওয়ে রনজিনা আক্তার (১৮) এর অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় তার পিতা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় রনজিনার স্বামী ও দেবর নিশান সহ আরো ৫ জনকে আসামী করে মামলা করা হয়েছে।
বুধবার(৩০ মে) দুপুরে ঠাকুরগাঁও সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে  এ মামলাটি করেন রনজিনার পিতা ধজিবুল ইসলাম।
এর আগে গত রোববার (২৭ মে) দুপুরে সদর উপজেলার রাজাগাও ইউনিয়নের দক্ষিণ খড়িবাড়ী গ্রামের আসামীগনের  নিজ বাড়িতে তার গলায় ফাঁস দেওয়া লাশ পাওয়া যায়।
রনজিনার বাবা ধজিবুল ইসলাম জানান, আনুমানিক ৪/৫ মাস আগে সদর উপজেলার রাজাগাও ইউনিয়নের দক্ষিণ খড়িবাড়ি (গুচ্ছ গ্রাম)’র শাহজাহান আলীর ছেলে ( ২ নং আসামী) আনারুল ইসলামের সাথে রনজিনার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তার দেবর (১ নং আসামী ) নিশান রনজিনাকে নানা কুপ্রস্তাব দিতে থাকে। রনজিনা এ বিষয়টি তার স্বামী ও শশুরকে জানালে তারা তা আমলে নেয়নি। এরপর গত রোববার রনজিনার স্বামী বাসায় না থাকার সুযোগে তার দেবর নিশান রনজিনার ওপর পাশবিক নির্যাতন চালায় এবং তার স্বামী ও শশুর বাসায় ফিরে এলে তাদেরকে বিচার দেয়। তারা আবারো বিষয়টি আমলে না নিয়ে উল্টো রনজিনার ওপর শারিরীক নির্যাতন চালায়। এক পর্যায়ে রনজিনা মারা গেলে তার শশুর বাড়ির লোকেরা তার গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে সবাইকে জানায়। কিন্তু মৃতের লাশ গোসল করাতে গেলে সেখানকার প্রত্যক্ষদর্শীরা তার শরীরে গোপনাঙ্গ সহ নানা স্থানে ক্ষতের চিহ্ন দেখতে পায়। আমি মেয়ের মৃত্যু শোকে কাতর থাকায় মামলাটি করতে দুদিন বিলম্ব হলেও আমি চাই মেয়ের মৃত্যুুর সঠিক কারন বের হয়ে আসুক ও অপরাধীরা সাজা পাক।
ঠাকুরগাঁও সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল লতিফ মিঞা জানান, আমরা একবার ময়না তদন্ত করেছি। দ্বিতীয় বার মামলা করায় আদালত থেকে অবশ্যই পুনরায় ময়না তদন্তের বিষয়টি আসবে। পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখা হবে ।