আর্ন্তজাতিক

রক্তাক্ত শ্রীলঙ্কা, নিহত বেড়ে ৩৫৯

শ্রীলঙ্কায় চার্চ, অভিজাত হোটেল ও কলম্বোর পার্শ্ববর্তী এলাকায় ভয়াবহ সিরিজ বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫৯ জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া হামলায় আহত হয়েছেন আরও ৫০০জন। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। দেশটির পুলিশ বুধবার এই তথ্য জানায়। খবর সিএনএনের।

এই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে দেশটির পুলিশ এখন পর্যন্ত ৪০ জনকে আটক করেছে।

নিহতদের স্মরণে দেশটির নাগরিকেরা গতকাল তিন মিনিট নিরবতা পালন করেছে। শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে বলেন, এই ট্রাজেডির মুখে আমাদের ঐক্যবদ্ধ থাকা আবশ্যক।

ইতিমধ্যে এ সিরিজ বোমা হামলার দায় স্বীকার করেছে ইসলামিক স্টেট(আইএস)। মঙ্গলবার আইএসের বার্তা সংস্থা আমাক এজেন্সি দায় স্বীকার করে। তবে এ ব্যাপারে কোন প্রমাণ উপস্থাপন করেনি সংগঠনটি।

এর আগে, শ্রীলংকান সরকার দাবি করে, আন্তর্জাতিক নেটওয়ার্কের সহায়তা নিয়ে উগ্র ইসলামপন্থী সংগঠন তৌহিদ জামাত হামলাটি চালিয়েছে। সংগঠনটি দায় স্বীকার করেছে বলেও দাবি করেছে রুশ বার্তা সংস্থা তাস।

দেশটির স্থানীয় সময় গত রবিবার সকাল ৮ টা ৪৫ নাগাদ খ্রিস্টানদের ধর্মীয় উৎসব ইস্টার সানডে উদযাপনকালে কোচকিকাদে, কাতুয়াপিটিয়া ও বাট্টিকালোয়া নামক স্থানের তিনটি গির্জায় বোমা বিস্ফোরণ ঘটে।

প্রায় একই সময়ে দেশটির রাজধানীর অভিজাত তিনটি হোটেল সাংগ্রি লা, দ্য কিন্নামোন এবং কিংসবারিতে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।