খেলাধুলা

মুস্তাফিজের পরে জায়েদের কীর্তি

বাংলাদেশের বাঁ-হাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমান ২০১৫ সালে অভিষেক ওয়ানডেতে ভারতের বিপক্ষে পাঁচ উইকেট নেন। পরের ম্যাচে নিয়েছিলেন ছয় উইকেট। ওই বছরের নভেম্বরে ফিজ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তুলে নেন পাঁচ উইকেট। এরপর আর কোন বাংলাদেশী পেসার ওয়ানডেতে পাঁচ উইকেট পাননি। প্রায় চার বছর পরে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সেটা করে দেখালেন আবু জায়েদ।

নিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে খেলতে নেমে তিনি ৯ ওভারে ৫৮ রান দিয়ে নিয়েছেন ৫ উইকেট। তার ক্যারিয়ারে দুই ম্যাচে উইকেট ওই পাঁচটিই। এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অভিষেক ম্যাচে উইকেট শূন্য ছিলেন তিনি। এরপর দলে জায়গা নিয়েই দেখা দেয় প্রশ্ন।

জায়েদ সেই প্রশ্নের ভালো জবাব দিলেন। এর আগে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের দলে তার জায়গায় তাসকিনকে নেওয়ার গুঞ্জন ওঠে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসানও কথাটা উড়িয়ে দেননি। তবে জায়েদকে সুযোগ না দিয়ে তাকে দল থেকে বাদ দেওয়ার পক্ষে তিনি ছিলেন না।

এরপর আয়ারল্যান্ড ম্যাচের আগে টিম ম্যানেজার নান্নু জানান, বিশ্বকাপে জায়েদই যাবেন। তাসকিন গেলে যাবেন ১৬তম সদস্য হিসেবে। তবে প্রথম ম্যাচে খারাপ করা জায়েদের ওপর তারপরও চাপ ছিল। দলের থেকে ভরসা পেয়ে জায়েদ তার প্রতিদান ভালো মতোই দিলেন।

জায়েদের আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে নেওয়া উইকেট পাঁচটিও গুরুত্বপূর্ণ। তিনি ফিরিয়েছেন সেঞ্চুরি করা পল স্টার্লিংকে। ফিরিয়েছেন সেঞ্চুরির পথে থাকা অধিনায়ক উইলিয়াম পোর্টারফিল্ডকে। তুলে নিয়েছেন মারকুটে ব্যাটসম্যান কেভিন ও’ব্রেইনকে। আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করা অ্যান্ডু বালবার্নিকে ফেরান শুরুতে। উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান গ্যারি উইলসনও জায়েদের শিকার।