বরিশাল বিভাগ

বরিশালে যুবলীগ নেতার পায়ের রগ কর্তন

বরিশাল সদর উপজেলার শায়েস্তাবাদে যুবলীগ নেতা জাফর আকনের দুই পায়ের রগ এবং তার ভাই জাহিদকে কুপিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মামুন তালুকদার ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর বিরুদ্ধে। এদের মধ্যে জাফরের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে ঢাকায় প্রেরণ এবং জাহিদকে শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় শায়েস্তাবাদে এই হামলার ঘটনা ঘটে।

জাফর ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শায়েস্তবাদের দক্ষিণ চরআইচা এলাকার ফজলে আলী আকনের ছেলে।

শায়েস্তাবাদ ইউনিয়নের ৭নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. সেলিম জানান, জাফর তার বাড়ি থেকে চরআইচা বাজারে যাবার পথে মামুন ও তার সহযোগীরা তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারী কুপিয়ে আহত করে। এ সময় জাফর সড়কে পড়ে গেলে সন্ত্রাসীরা তার দুই পায়ের রগ কেটে দেয়। জাফরের ডাকচিৎকারে ছোট ভাই জাহিদ এগিয়ে এলে তাকেও কুপিয়ে জখম করে তারা।

সেলিম আরো জানান, গত ৬ মাস আগে ওই এলাকায় একটি গরুর মৃত্যু নিয়ে শালিসী হয়। ওই শালিসীতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মামুন তালুকদারের সাথে ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক জাফরের দ্বন্দ্ব হয়। তখনই মামুন ক্ষুব্ধ হয়ে জাফরকে দেখে নেয়ার হুমকি দেয়।

এ ঘটনায় ওইদিনই জাফর বাদী হয়ে কামাল প্যাদাসহ অন্যান্যদের বিরুদ্ধে কাউনিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে শায়েস্তাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আরিফুজ্জামান মুন্না জানান, দলীয় অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে জাফরকে হত্যার উদ্দেশ্যে মামুন ও তার সহযোগী সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে আহত করে।

নগরীর কাউনিয়া থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।