বিনোদন

প্রিয়াঙ্কাকে কটাক্ষ করে যা বললেন পাকিস্তানি তারকা আরমিনা খান

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পর সেনাদের অভিনন্দন জানিয়ে একটি স্ট্যাটাস দেন বলিউড অভিনেত্রী ও ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভারতীয় বিমান সেনাদের সাহসিকতা নিয়ে স্ট্যাটাস দিয়ে তোপের মুখে পড়েছেন এই অভিনেত্রী।

২৭ ফেব্রুয়ারি তিনি টুইটার হ্যান্ডলে লেখেন, ‘জয় হিন্দ। #ইন্ডিয়ান আর্মড ফোর্সেস।’ তবে পাকিস্তান এই বিষয়টিকে ভালো চোখে দেখেনি। পাক-ভারত উত্তেজনা নিয়ে তার ভূমিকা নিরপেক্ষ ছিল না। তাই এখন আর ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হওয়ার যোগ্যতা তার নেই।

এদিকে দেশটির তারকা আরমিনা খানের কঠোর সমালোচনার মুখে পড়েছেন প্রিয়াঙ্কা। জাতিসংঘের ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হওয়া স্বত্ত্বেও এমন মন্তব্যে প্রিয়াঙ্কার সমালোচনা করেন তিনি।

আরমিনা খান টুইটারে লেখেন, এর জন্য প্রিয়াঙ্কাকে ক্ষমা চাইতে হবে। এবং ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত পদ থেকে সরে যেতে হবে।’

তিনি আরও লেখেন, ‘ এ ব্যাপারে প্রিয়াঙ্কার কাছে বিস্তারিত জানতে চাই। আমি মনে করি, পাকিস্তান ও গোটা বিশ্বের কাছে প্রিয়াঙ্কার ক্ষমা চাওয়া উচিত। শরণার্থী শিশুদেরকে জড়িয়ে ধরে আপনি (প্রিয়াঙ্কা) যেভাবে ছবি তুলেছেন তা খুবই ভালো। কিন্তু একবার যদি তাদের চোখের দিকে তাকান এবং তাদের যন্ত্রণা দেখেন তাহলে শান্তির জন্য আপনি সব করতে পারবেন। #নোটুঅয়্যার।’

প্রসঙ্গত, কাশ্মীরের পুুলওমায় গত ১৪ ফেব্রুয়ারি জঙ্গি হামলায় ভারতে ৪৪ বেসামরিক সেনা নিহত হয়। এ হামলার দায় স্বীকার জঙ্গি গোষ্ঠী জইশ-ই মোহাম্মদ। তবে এ হামলার পেছনে পাকিস্তানের মদদ রয়েছে বলে দাবি করে ভারত। এরপর থেকে দু’দেশের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়।

এরপর জঙ্গি হামলার প্রতিশোধ নিতে ভারতীয় বিমান বাহিনী পাকিস্তানের অভ্যন্তরে ঢুকে বিমান হামলা চালায়। এ সময় ভারতের পক্ষ থেকে দাবি করা হয় জইশ-ই-মোহাম্মদের ক্যাম্প ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে। এমন ঘটনার পর অনেক বলিউড তারকারা তাদের পাইলটদের সাহসীকতার প্রশংসা করে।