আজকের সেরা সংবাদ

পূর্বাচল স্টেডিয়াম বানিয়ে বিশ্বকে দেখিয়ে দেবে বাংলাদেশ

পূর্বাচল স্টেডিয়ামের কল্পিত নকশা। ছবি : সংগৃহীত

বাংলাদেশে একটি আন্তর্জাতিকমানের ক্রিকেট স্টেডিয়াম নির্মিত হতে যাচ্ছে- এটা বেশ পুরনো খবর।এই কাজের দৃশ্যমান অগ্রগতিও হচ্ছে। সরকারের কাছ থেকে ১০ লাখ টাকায় প্রতীকী মূল্যে ৩৭.৪৯ একর জমি পেয়েছে বিসিবি। আজ শনিবার বিসিবি কার্যালয়ে স্টেডিয়াম নির্মাণ বাস্তবায়ন বিষয়ে প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কাজ শুরুর দুই বছরের মধ্যে পূর্বাচল স্টেডিয়াম নির্মাণ শেষ হবে। আর স্টেডিয়ামের ডিজাইন এমনভাবে করা হবে, যাতে শুধু বাংলাদেশই নয়; গোটা ক্রিকেটবিশ্ব চেয়ে চেয়ে দেখবে।

সভা শেষে গ্রাউন্ডস কমিটির প্রধান মাহবুব আনাম সাংবাদিকদের বলেন, কীভাবে আমরা পরিকল্পনা করব, তার একটা রূপরেখা তৈরি করা হয়েছে আজ। এই কমিটিতে বাইরে থেকে বেশ কজন বিশেষজ্ঞ আর বুয়েট থেকে প্রতিনিধি নেওয়া হবে। এ মাসের মধ্যেই আমরা মাঠের পজেশনের কাজ করব। পজেশন পেলেই কাজে গতি আসবে। আমাদের লক্ষ্য, এটি এমন একটা স্টেডিয়াম হবে যেটা শুধু এই অঞ্চলে নয়, পুরো ক্রিকেট বিশ্বেই হবে দেখার মতো।’

নিজস্ব অর্থায়নে নির্মিতব্য পূর্বাচল স্টেডিয়ামের নকশা কেমন হবে সেটা এখনো চূড়ান্ত হয়নি। তবে গত ফেব্রুয়ারিতে আইসিসি সভাপতি শশাঙ্ক মনোহরের সফরের সময় ‘নৌকা’র আদলে স্টেডিয়ামের একটি নকশা উপস্থাপন করেছিল বিসিবি। তবে সেই নকশা এখনও চুড়ান্ত হয়নি। এতে সংযোজন এবং বিয়োজন করা হবে। এখন পর্যন্ত মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামই দেশের ‘হোম অব ক্রিকেট’। পূর্বাচল স্টেডিয়াম নির্মাণের পর বিসিবির কার্যালয় মিরপুর থেকে সরবে কিনা সে বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। তবে মিরপুরের মাঠ আন্তর্জাতিক ভেন্যু হিসেবেই স্বীকৃত থাকবে।