জাতীয়

পাঁচ ধাপ কমেছে বাংলাদেশের পাসপোর্টের ক্ষমতা

বৈশ্বিক পাসপোর্ট র‌্যাংকিংয়ে গত বছরের তুলনায় চলতি বছরে পাঁচ ধাপ পিছিয়েছে বাংলাদেশ। আগের বছর ৯৫তম স্থানে থাকলেও এবার ১০০-তে নেমে গেছে, যা সূচকের সর্বনিম্ন অবস্থান থেকে মাত্র পাঁচ ধাপ ওপরে।

সাধারণত ভিসা ছাড়া কেবল পাসপোর্ট দিয়ে বিদেশে যাওয়ার ওপর জরিপের ভিত্তিতে এ র‌্যাংকিং করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক নাগরিকত্ব ও পরিকল্পনাবিষয়ক সংস্থা হ্যানলি অ্যান্ড পাসপোর্ট পার্টনার্সের সূচক থেকে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। ভিসা ছাড়া শুধু পাসপোর্ট দিয়ে বিদেশ যাওয়ার ওপর জরিপের ভিত্তিতে এ র‌্যাংকিং করা হয়েছে।

কোনো দেশের পাসপোর্ট দিয়ে ভিসা ছাড়া কতটি দেশে যাওয়া যায় তার ওপর নির্ভর করে দেশটির পাসপোর্ট কতটা শক্তিশালী। আর ভিসা ছাড়া বিদেশ গমন বলতে বোঝায় অন অ্যারাইভাল ভিসা।

অগ্রিম ভিসা না করে শুধু টিকিট কেটে অন্য দেশে চলে যাওয়া যায়। সেই দেশে ভিসার যাবতীয় কাজ সারা হয়। বাংলাদেশের পাসপোর্টধারীরা ভিসা ছাড়াই বিশ্বের ৪১ দেশে ভ্রমণ সুবিধা পান।

হেনলি পাসপোর্ট সূচকের প্রতিবেদনে বলা হয়, ভিসা ছাড়া শুধু পাসপোর্ট দিয়ে বিদেশ যাওয়ার ভিত্তিতে র‌্যাংকিং করা হয়। এ তালিকায় বাংলাদেশের সঙ্গে রয়েছে লেবানন, ইরান ও কসোভো।

র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষে আছে এশিয়ার দেশ জাপান। দেশটির পাসপোর্ট দিয়ে ১৯০ দেশে বিনা ভিসায় ভ্রমণ করা যায়।

দ্বিতীয় স্থানে আছে সিঙ্গাপুর। ভিসা ছাড়াই ১৮৯ দেশে ভ্রমণের সুযোগ রয়েছে সিঙ্গাপুরের পাসপোর্টে।

এর পর র‌্যাংকিংয়ে তৃতীয় স্থানে যৌথভাবে রয়েছে- ফ্রান্স, জার্মানি, দক্ষিণ কোরিয়া, যাদের পাসপোর্টধারী নাগরিকরা ভিসা ছাড়াই ১৮৮ দেশে ভ্রমণের সুবিধা পেয়ে থাকেন। অন্যদিকে তালিকার শেষে ১০৫ নম্বরে রয়েছে ইরাক ও আফগানিস্তান।