রাজনীতি

নির্বাচনের তারিখ না পেছানোর দাবি আওয়ামী লীগের

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ যেন আর পেছানো না হয় সেই দাবি জানিয়েছে আওয়ামী লীগ। বিদেশিদের সুযোগ সুবিধা দেখে তারিখ পেছানো যৌক্তিক হবে না। বললেন আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কো-চেয়ারম্যান এইচ টি ইমাম।আজ (বুধবার) সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কো-চেয়ারম্যান এইচ টি ইমামের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল কমিশনের সঙ্গে বৈঠকে বসে।বৈঠক শেষে এইচ টি ইমাম সাংবাদিকের বলেন, নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষ আসা নিয়ে ভোটের তারিখ পেছানোর দাবি যৌক্তিক নয়। বিদেশিদের সুযোগ সুবিধা দেখে তারিখ পেছানো ঠিক হবে না।তিনি বলেন, ডিসেম্বরের পর নির্বাচন সম্ভব নয়। কারণ জানুয়ারিতে স্কুলে শিক্ষার্থীদের নতুন বই দেয়া হবে। এ মাসে বিশ্ব ইজতেমা রয়েছে।এইচ টি ইমাম বলেন, নির্বাচন কমিশন নির্বাচনকালীন সরকারের দায়িত্বে। কমিশন যেকোনও নিরপেক্ষ সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। তাদের কাছে নয়াপল্টনের ঘটনার জন্য ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছি।বিএনপির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর এইচ টি ইমাম বলেন, তারা একদিকে সুষ্ঠু ভোট চাইবেন, আরেকদিকে সহিংসতা করবেন। এটা হতে পারে না।উল্লেখ্য, ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে ঐক্যফ্রন্টের প্রতিনিধি দল দেখা করেন নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে।এসময় তারা আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সময় ফের পেছানোসহ কিছু দাবি নির্বাচন কমিশনের কাছে জানান। কমিশন তাদের এ দাবি বিচেনার  আশ্বাস দিয়েছে বলে জানিয়েছেন ড. কামাল। এসময় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, নির্বাচনের সময় সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে। খালেদা জিয়ার মুক্তি ছাড়া নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হবে না।