অর্থনীতি

দাম কমেছে মাংস-সবজির, বেড়েছে মাছের

ঈদের ছুটি শেষ হলেও এখনো পুরোপুরি কেনাবেচা জমে ওঠেনি রাজধানীর কাঁচাবাজারগুলোতে। এর মধ্যেই আজ থেকে আবারও টানা তিন দিনের ছুটিতে ঢাকাবাসী। বিক্রেতারা জানান, বাজারে পর্যাপ্ত সবজির আমদানি থাকলেও ক্রেতার সংখ্যা তুলনামূলক কম। ফলে চলতি সপ্তাহে কমেছে বেশিরভাগ সবজির দাম। দাম কমার তালিকায় রয়েছে ব্রয়লার মুরগি ও খাসির মাংস। তবে, স্থিতিশীল মাছ ও ডিমের দাম।

ঈদের ছুটি শেষে রাজধানীবাসী কর্মব্যস্তাতায় ফিরলেও ভিন্ন চিত্র কাঁচা বাজারে। শুক্রবার (৩১ আগস্ট) সাপ্তাহিক ছুটির দিনেও লোক সমাগম রয়েছে তুলনামূলক কম। তবে বাজারে সবজির কোনো কমতি নেই । বাজার ঘুরে দেখা যায়, পটল, ঢেড়স, করলা, চিচিংগা সহ বেশিরভাগ মৌসুমি সবজি কেজিতে কমেছে ৮-১০ টাকা। যদিও উর্ধ্বমুখী বেগুন, টমেটো ও বরবটির দাম।

ক্রেতাদের একজন বলেন, চাহিদা কম থাকায় তাও কিছুটা কম আছে দাম। তবে কিছু সবজির দাম বেশি।

পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকায় স্থিতিশীল রয়েছে বেশিরভাগ মাছের দাম। বাজারে প্রতিকেজি রুই ও কাতল মাছ মানভেদে ২৫০-৩০০ টাকা ও তেলাপিয়া বিক্রি হচ্ছে ১৫০-১৮০ টাকা। তবে ইলিশের দাম বাড়তি বলে অভিযোগ ক্রেতাদের।

ঈদের আগে প্রতি কেজি খাসির মাংস ৮০০-৮৫০ টাকা বিক্রি হলেও চাহিদা কম থাকায় এখন পাওয়া যাচ্ছে ৭০০ থেকে ৭৫০ টাকায়। আর গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৪৮০-৫০০ টাকা দরে।

চলতি সপ্তাহে কেজিতে ১০-১৫ টাকা কমে প্রতিকেজি ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৫০ টাকা এবং লেয়ার মুরগি ২৫০ টাকা। স্থিতিশীল রয়েছে সব ধরনের ডিমের দাম। বিক্রেতারা প্রতি হালি ফার্মের মুরগির ডিম ৩০ টাকা ও দেশি মুরগি ও হাঁসের ডিম বিক্রি করছেন ৪৫ টাকা দরে।