আর্ন্তজাতিক

তেল আমদানিকারকদের জন্য কঠিন দিন আসছে: ইরান

আন্তর্জাতিক বাজার থেকে যারা জ্বালানি তেল আমদানি করে থাকে, তাদের জন্য কঠিন দিন আসছে বলে মন্তব্য করেছেন ইরানের তেলমন্ত্রী বিজান নামদার জাঙ্গেনেহ।

বুধবার ইরানি গণমাধ্যম পার্স টুডে’তে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গণমাধ্যমকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এই মন্তব্য করেন।

বিজান জাঙ্গেনেহ বলেন, যুক্তরাষ্ট্র কয়েকটি দেশকে ইরানের কাছ থেকে তেল ক্রয়ের অনুমতি দিলেও তা আন্তর্জাতিক বাজারের চাহিদা মেটাতে সক্ষম হবে না। তাই আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই জ্বালানি তেলের সংকট দেখা দেবে এবং তেল ক্রেতারা কঠিন সমস্যায় পড়বে।

তিনি বলেন, আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার সহযোগিরা প্রথমে ইরানের তেল বিক্রি শূন্যে নামিয়ে আনার ঘোষণা দিলেও এখন তারাই স্বীকার করছে যে আন্তর্জাতিক তেলের বাজার থেকে ইরানকে দূরে রাখা সম্ভব নয়।

ইরানের তেলমন্ত্রী বলেন, ট্রাম্প মধ্যবর্তী নির্বাচনে ভোট পেতে নিজ দেশে কৃত্রিমভাবে তেলের দাম কমিয়ে রেখেছেন। কিন্তু খুব বেশিদিন কৃত্রিম উপায়ে তেলের দাম কমিয়ে রাখা সম্ভব হবে না। কয়েক মাসের মধ্যেই তেলের দাম বেড়ে যাবে।

গত সোমবার থেকে ইরানের তেল ও ব্যাংকিং খাতে দ্বিতীয় ধাপের নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করে ট্রাম্প প্রশাসন। তবে দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান ও ইতালিসহ ৮টি দেশকে ইরান থেকে তেল ক্রয়ের অনুমতি দেয়া হয়েছে।

এর আগে, গত মে মাসে ট্রাম্প ৬ রাষ্ট্রের সঙ্গে ইরানের সই করা পরমাণু সমঝোতা থেকে অবৈধভাবে বেরিয়ে যাওয়ার পর দেশটির তেল বিক্রি শূন্যে নামিয়ে আনার ঘোষণা দেন। কিন্তু এই ঘোষণাকে গুরুত্ব না দিয়ে অনেক দেশই ইরানের কাছ থেকে তেল ক্রয় অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্তের কথা জানায়।