আজকের সেরা সংবাদ

তফসিলকে স্বাগত জানিয়েছে আওয়ামী লীগ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিলকে স্বাগত জানিয়েছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। আজ তফসিল ঘোষণার মধ্য দিয়ে নির্বাচন নিয়ে ধোঁয়াশা কেটে গেছে বলে জানিয়েছেন দলটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ।তফসিল ঘোষণার ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে  তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় আওয়ামী লীগের পক্ষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। সব দল নির্বাচনে অংশ নেবে বলেও তিনি আশাবাদ ব্যাক্ত করেন।বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা। আগামী ২৩ ডিসেম্বর নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেন তিনি।  নির্বাচনে মনোয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ১৯ নভেম্বর। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই ২২ নভেম্বর। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার ২৯ নভেম্বর ঘোষণা করেন সিইসি।  প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, সংলাপের মাধ্যমে পর্যবেক্ষক, ৪০টি রাজনৈতিক দল, সাংবাদিক ও সুশীল সমাজের নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করা হয়েছে। সংলাপে তাদের সুপারিশগুলো নিয়ে তা বাস্তবায়ন করা হয়েছে।তিনি বলেন, ভোটার তালিকা চূড়ান্ত করা হয়েছে। ৭৫টি রাজনৈতিক আবেদন নিষ্পত্তি করা হয়েছে। নির্বাচনের সামগ্রিক কাজ শেষ হয়েছে। নির্বাচনের প্রস্তুতি সম্পূর্ণ করা হয়েছে। রাষ্ট্রপতিকে অবগত করা হয়েছে। নির্বাচনের জন্য ৭ লাখ কর্মকর্তা নিয়োগ প্রক্রিয়া চলছে। নির্বাচনে দায়িত্ব পালনে ব্যর্থদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে অসামরিক প্রশাসনকে যথা-প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদানের জন্য সশস্ত্র বাহিনী  মোতায়েন থাকবে। পর্যবেক্ষকগণ নির্বাচন কমিশনের নিয়ম অনুযায়ী পর্যবেক্ষণ করবেন। নির্বাচন কমিশন সার্বিক নির্বাচনের মনিটরিং করবে।তিনি আরও বলেন, প্রত্যেক দলকে একে অপরের সাথে সহনশীল আচরণ করতে হবে। প্রতিযোগিতা ও প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচন করা উচিত। প্রতিদ্বন্দ্বিতা যেন প্রতিহিংসায় রূপ না নেই সে দিকে নজর রাখতে হবে। সিইসি বলেন, ভোটারও নির্বাচনী কর্মকর্তাদের নিরাপত্তা দিতে আইন শৃঙ্খলাবাহিনীকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।তিনি আরও বলেন, স্বল্প পরিসরে শহরের বিভিন্নস্থানে ইভিএম প্রক্রিয়ায় ভোটগ্রহণ করা হবে।