আর্ন্তজাতিক

ট্রাম্পকে হিসাব-নিকাশ পাল্টে আমার কাছে আসতে হবে : কিম

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন বলেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে তার দ্বিতীয় শীর্ষ বৈঠক ব্যর্থ হওয়ার পর দু’দেশের মধ্যে পূর্বেকার উত্তেজনা ফিরিয়ে আনার আশঙ্কা তৈরি করছে ওয়াশিংটন। মার্কিন সরকার তার আচরণে পরিবর্তন আনলেই কেবল দু’দেশের মধ্যে আরেক দফা শীর্ষ বৈঠক হতে পারে বলেও তিনি মন্তব্য করেছেন।

ডোনাল্ড ট্রাম্প বৃহস্পতিবার এক বক্তব্যে কিম জং-উনের সঙ্গে তৃতীয় বৈঠকে মিলিত হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করার পর শনিবার উত্তর কোরিয়ার নেতা ওই প্রতিক্রিয়া জানালেন।

কিম বলেন, আমেরিকাকে তার বর্তমান হিসাবনিকাশ বন্ধ করে আমাদের কাছে নতুন হিসাবনিকাশ নিয়ে আসতে হবে।

উত্তর কোরিয়ার নেতা বলেন, তিনি ওয়াশিংটনকে সিদ্ধান্ত নিতে ‘বছরের শেষ পর্যন্ত’ সময় দিতে পারবেন না। আমেরিকা তার এ দাবি মেনে না নিলে তিনি কি পদক্ষেপ নেবেন সে সম্পর্কে কোনো ইঙ্গিত করেননি কিম। তবে সাম্প্রতিক সময়ে স্যাটেলাইট থেকে তোলা ছবিতে উত্তর কোরিয়ার সবচেয়ে বড় ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ স্থাপনায় কর্মতৎপরতা লক্ষ্য করা গেছে।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়ে কিম-ট্রাম্প দ্বিতীয় শীর্ষ বৈঠক ব্যর্থ হয়। ওই বৈঠকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট উত্তর কোরিয়ার ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের পূর্বশর্ত হিসেবে দেশটি সব পরমাণু অস্ত্র ধ্বংস করে ফেলার আহ্বান জানান। কিন্তু উত্তর কোরিয়ার নেতা তাতে সম্মতি না দিয়ে পর্যায়ক্রমিক পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের বিনিময়ে তার দেশের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা শিথিল করার আহ্বান জানান। ট্রাম্প ওই আহ্বান মেনে নিতে অস্বীকৃতি জানান এবং বৈঠক ব্যর্থ হয়।

এর আগে গত বছরের জুন মাসে সিঙ্গাপুরে প্রথমবারের মতো বৈঠকে বসেন চির-শত্রুভাবাপন্ন দুই দেশ আমেরিকা ও উত্তর কোরিয়ার দুই শীর্ষ নেতা। ওই বৈঠকে তারা কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু অস্ত্র মুক্ত করার ব্যাপারে নীতিগতভাবে সম্মত হন।